ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

যে কোন দিন, যে কোন মাসে,যে কোন ব্যাংকের যে কোন শাখায় গেলে দেখা যায়,বিদ্যুৎ-গ্যাস-পানি-টেলিফোন সহ বিভিন্ন রাষ্ট্রীয় সেবার বিল এবং বিভিন্ন ধরনের লোনের কিস্তি সহ সরকারি নানান পাওনা পরিশোধ করতে,সাধারন মানূষের বিরাট লম্বা লাইন।অসহনিয় গরমে ঘামে ভিজে চপচপ হয়েও, ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে তারা সরকারি নানান পাওনা পরিশোধ করে সুনাগরিকের স্বাক্ষর রাখছে।

আর এই সাধারন মানুষগুলির রক্ষকরূপি ক্ষমতাবানেরা, তাদের কাছে সরকারি এসব পাওনা পরিশোধের কোন তোয়াক্কাই করেনা। মাসের পর মাস-বৎসরের পর বৎসর ধরে, এসব সরকারি পাওনা পরিশোধ না করে ‘বিলখেলাপি-ঋনখেলাপি’ নামে পরিচিত হয়ে যেন আরো গর্ববোধই করে।এ প্রাসঙ্গিক প্রস্নে, সরকারি এ সব পাওনা পরিশোধ না করাকে “মামুলি ব্যাপার”(সাবেক স্পিকার জমিরউদ্দিন সরকারের উত্তর) বলে উড়িয়ে দেয়। যেন দেশটা তাদের বাপ-দাদার সম্পত্তি।

শুধু তাই নয়,সাধারন মানূষের পরিশোধ করা এইসব বিল-কর-লোনের টাকা,নানানভাবে তছরুপ-জালিয়াতি-আত্বসাৎ-চুরি করে এবং ‘উপরি-ঘুষের নামে জনগনের পকেট কেটে,ওপর তলার এই রক্ষকরুপি ভক্ষকেরা,নিজেদের সম্পদের পাহাড় গড়ে তুলে,দেশ-বিদেশে বিলাসি জীবনযাপন করে।

এরপরও এদেশের সাধারন মানূষ চুপচাপ থাকে,নিজেদের কাছে সরকারি সব পাওনা যথাসময়ে মিটিয়ে দেয়ার জন্য ঘন্টার পর ঘন্টা লাইনে দাঁড়িয়ে থাকে। সত্যিই কত ভালো(!) আমাদের দেশের সাধারন মানূষ!!