ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

২৯/৯/১১ তারিখের বাংলাদেশ প্রতিদিন এ,আমার অতি প্রিয় সাংবাদিক-কলামিষ্ট পীর হাবিবুর রহমান,২৭ সেপ্টেম্বারের জনসভায় বেগম খালেদা জিয়ার ভাষন বিশ্লেষনে, “খালেদা শালীনতার নেকাব খোলেননি তবে—-“শীর্ষক মন্তব্য প্রতিবেদনে, যুদ্ধাপরাধীদের বিচারের বিপক্ষে খালেদা জিয়ার অবস্থান জানান দেয়া,র‍্যাব-পুলিশকে কোন প্রকার ট্রেনিং না দেয়ার জন্য আন্তর্জাতিক সাহায্য সংস্থার প্রতি অনুরোধ ,ইত্যাদি কিছু ‘তবে’ তুলে ধরেছেন।এর সাথে বেগম জিয়ার ভাষন প্রসঙ্গে, আরো দুটি ‘তবে’ আমি এখানে যোগ করছি-যা তিনি(পীর হাবিবুর রহমান) মিস করেছেন।

১)খালেদা জিয়া বলেছেন- “এই সরকার জনগনের প্রতিনিধিত্ব করেনা।তাই এরা কোন চক্তি কলে তা মানা হবেনা”- এই সরকারের করা কোন চুক্তি বেগম জিয়া মানবেন কি মানবেননা,এটা তার ব্যাক্তিগত ব্যাপার।কিন্ত ‘এ সরকার জনগনের প্রতিনিধিত্ব করেনা’- এটা কেমন কথা?? বিগত নির্বাচনে জনগনের বিপুল রায়ে গঠিত এই সরকারের এমনতর মূল্যায়নতো,জনগনের রায়কে অস্বিকার ও অপমানিত করারই শামিল।তাহলে এই বেগম জিয়াদের আস্থায় নিয়ে,তাদের সাথে এই সরকার কোন আলোচনা/সহযোগিতা করে কি করে?

২)তিনি(খালেদা জিয়া) আরো বলেছেন- “পুলিশ পাহারায় আপনাদের(সরকারি দলের) মিছিল করতে হয়,পুলিশ বাদ দিয়ে আসুন,আমরাও আসি, দেখেন কী হয়”-কথাটা একটু পেশি প্রদর্শন হয়ে গেলোনা কী? এমন কথা আব্বাস-খোকা-পিন্টু-লাল্টুদের মুখে মানায়।এর আগে তারা এমন পেশি প্রদর্শনী কথা অনেক বলেছেনও।কিন্ত একজন,দুই দুই বারের সাবেক প্রধানমন্ত্রী,বিএনপি’র মতো একটি দলের দলীয় প্রধান এবং সংসদে বিরোধী দলীয় নেত্রীর মূখে এমন পেশি দেখানো কথা নিতান্তই বেমানান।