ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

বিএনপি’র নেতারা সব কিছুতেই কেবল তাদের ক্লেদাক্ত অতীতটাকেই দেখতে পান।তাই গরগর করে তোতা পাখির মতো মুখস্থ সব বলে যান।এই যেমন মিটিং,মিছিল,হরতাল,রোডমার্চ ইত্যাদি যে কোন কর্মসূচী ঘোষনা করেই ‘সরকারি নানান প্রতিবন্ধকতার’ আগাম এবং কাল্পনিক অভিযোগ এনে তারস্বরে হৈ চৈ করা শুরু করে।কিন্ত এসরকারের আমলে,তাদের ঘোষিত কোন কর্মসূচীতেই সরকার বা সরকারি দল কোথাও (ব্যাতিক্রমবাদে) কোন প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করেনাই।প্রায় সকল কর্মসূচীই তারা সফলভাবে পালন করতে পেরেছেন।বরং সরকারি তরফ থেকে যথাযথ সহযোগিতাই করা হ…য়েছে।তাহলে আগেভাগেই কেন এই আগাম ও কাল্পনিক অভিযোগ এনে এতো হৈ চৈ শুর করে দেয়া?

আসলে বিএনপি ভাবতেই পারেনা যে,কোন প্রকার সরকারি বাধাবিঘ্ন ও প্রতিবন্ধকতা ছাড়া,বিরোধীদল নির্বিঘ্নে তাদের ঘোষিত কোন কর্মসূচী পালন করতে পারে। তাদের আমলে যা বিরোধীদল সাধারনত করতে পারেনাই,করতে দেয়া হয়নাই।২১ আগষ্টের জনসভায় গ্রেনেড হামালা হয়েছে,এস এম কিবরিয়ার জনসভায় কিবরিয়াকে হত্যা করা হয়েছে,সুরঞ্জিত সেনের জনসভায় বোমা হামলা হয়েছে।ইত্যাদি আরো কত দৃষান্ত।তাই কোন কর্মসূচি ঘোষনা করার পরেই বিএনপি নেতাদের সামনে কেবল নিজেদের সেই অতীত ক্লেদাক্ত চেহারাটাই ভেসে ওঠে।কোন প্রকার সরকারি বাধাবিঘ্ন ও প্রতিবন্ধকতার সৃষ্টি করা হবেনা,বিরোধীদল হিসাবে তাদের কর্মসূচী তারা নির্বিঘ্নে পালন করবেন-এমনটি তাদের ভাবনাতেই আসতেই চায়না।