ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

 

অনেক দিন ধরেই লক্ষ করা যাচ্ছে,কালের কন্ঠ এবং একই গ্রুপের বাংলাদেশ প্রতিদিন পত্রিকা দুটি, প্রথম আলো- বিশেষ করে ইহার সম্পাদক জনাব মতিউর রহমানকে নিয়ে এক হীন খেলায় মত্ত হয়েছে। প্রথম আলোর সম্পাদক কোথায় কি করেছেন,কোথায় কি বলেছেন,২১ আগষ্ট গ্রেনেড হামলায় এবং ১/১১ তে তার কি ভূমিকা ছিলো,দুই নেত্রীকে মাইনাস করতে তিনি কি কি করেছেন,নানান ধরনের রং-চং মাখিয়ে ইত্যাদি কত ফিরিস্থি!! যতদূর জানি মতিউর রহমানের বিরুদ্ধে এমনতর হীন তৎপরতার কারনে, প্রেশ কাউন্সিল বা মাননীয় আদালতের তরফ থেকে,কালের কন্ঠ গংকে দায়ী করে সতর্ক ও করে দেয়া হয়েছে। এর ফলে কিছুদিন বিরত থাকার পর,তারা(কালের কন্ঠ গং) আবারো একই ভূমিকায় অবতীর্ন হয়েছে।

প্রথম আলোর সম্পাদক মিডিয়া জগতের একজন বরেন্য ব্যক্তিত্ব। তার নিজস্ব কোন ধ্যান ধারনা,মত-মতামত থাকতেই পারে।তার এই মতামতের ব্যাপারে অনেকের ভিন্নমতও থাকেতে পারে। তাই বলে তার বিরুদ্ধে কালের কন্ঠ গং দের এমনতর ব্যাক্তিগত আক্রোশ, এমনতর হীন প্রচার-প্রচারনা এক ধরনের নোংরামী ছাড়া আর কিছুই নয়।

আর ১/১১ তে ভূমিকা? দুই নেত্রীর মাইনাস? এ ব্যাপারে জনমত যাচাইয়ের কোন সঠিক উপায় যদি বের করা যেতো,তাহলে দেখা যেতো এদেশের সিংহ ভাগ মানূষ,এই দুই নেত্রী এবং ধারাবাহিকভাবে তাদের পুত্র-কন্যার তথা পরিবারতান্ত্রিক শাসন চিরস্থায়ী বন্দোবস্ত করার জন্য,গড়ে ওঠা দুর্বেধ্য এবং শক্তিশালী চাটুকার মহলের নাগপাশ থেকে মুক্তি চায়।

আর রক্ষকরুপি ভক্ষক, চোর-দুর্নীতিবাজ-রাক্ষস সরকারি মহলের বিরুদ্ধে, যে কঠিন,সাহসী এবং বাস্তবমূখি পদক্ষেপ ১/১১ পরবর্তিতে নেয়া হয়েছিলো,তা যদি সঠিক পথে পরিচালিতো করা যেতো,ভারসাম্য রক্ষার্থে ১/১১ পরবর্তি ক্ষমতাসীন মহল যদি এই ‘কোটি টাকার চোর’ আর ‘হাজার টাকার চোর’ কে এক বেতায় বেঁধে, বোঝা এতো বড় না করে ফেলতো, তাহলে তাদের এই পদক্ষেপ ও দেশের জন্য অভাবনীয় মঙ্গল বয়ে আনতো,এবং স্বার্থভোগী একটি বিশেষ চক্র ছাড়া,দেশের সিংহ ভাগ মানূষ অকুন্ঠচিত্তে তা সমর্থন করতো।

সুতরাং প্রথম আলোর সম্পাদক যদি এর পক্ষাবলম্বন করেও থাকেন,তাহলে এতে করে তার দোষ হতে যাবে কেন? একারনে তার তো বাহবা পাওয়ার কথা। মনে হয় এমন একদিন আবার নিশ্চই আসবে, যেদিন দেশের মানূষ উল্লেখিত কারনে, ১/১১ পরবর্তি সরকার এবং তার সমর্থনকারীদের শ্রদ্ধাভরে স্মরন করবে এবং চলমান দুই নেত্রীকেন্দ্রিক অপশাসক চক্রের বদলে,আরো একটু বাস্তবমূখি ১/১১ পরবর্তি ধরনের সরকারই বেশি মঙ্গলজনক মনে করবে।