ক্যাটেগরিঃ ব্লগ

 

আচ্ছা, মানুষ মারা গেলে কি চায় ? মৃত কি চায় যে তার কবরের উপর ঘর বানিয়ে দেওয়া হোক যাতে তার কবরের উপর রোদ-বৃষ্টি না পড়ে !! নাকি মৃত চায় যে তার সন্তুষ্টীর জন্য গরম গরম গরুর মাংস ভূনা খাওয়া হোক !! নাকি মৃত চায় যে তার কবরের পাশে হুজুর ভাড়া করে গুনগুন সুরে কোরআন পাঠ করা হোক !! নাকি মৃত চায় যে তার কবরের উপর সুগন্ধী মিশানো গিলাব বিছিয়ে দেওয়া হোক !! নাকি মৃত চায় যে তার কবরের পাশে বসে তার বিরহে মানুষে ক্রন্দন করুক !! নাকি মৃত চায় যে তার নামে ফুটবল-ক্রিকেটের টুর্নামেন্ট দেওয়া হোক !! নাকি মৃত চায় যে তার নামে স্টেডিয়াম, বিমানবন্দর বানানো হোক !! নাকি মৃত চায় যে তার কবরে এসে লোকে তারে টাকা দিয়ে যাক !! নাকি মৃত চায় যে তার ছবি নোটের উপর ছাপিয়ে দেওয়া হোক !!

আসলে মৃত কি চায় ?? এ নিয়ে একবার লোকে মুহাম্মদ সা: কে জিজ্ঞেস করলে উনি বলেন, যে মৃতের নিকট দুইটা জিনিস ছাড়া আর অন্য কিছু পৈাছায় না, একটা হলো এমন কোন কাজ যা সে দুনিয়াতে করে গেছে যার ফলে লোকে এখনও উপকৃত হচ্ছে(যেমন: রাস্তা, টিউবওয়েল,গাছ রোপন), অন্যটা হলো যে মৃত এমন সুশিক্ষিত সন্তান দুনিয়াতে রেখে গেছেন যারা পিতা-মাতার জন্য নিত্য আল্লাহর নিকট দোয়া করে । তো এই কথা থেকে বোঝা যায়, মৃত যা ভাল কাজ করেছে তা’ই তার নিকট পৈাছায় । যেমন: সন্তানকে সুশিক্ষিত করা,জনকল্যানমূলক কাজ করা (দুটোই উনার কীর্তি) । এছাড়াও আরেকটি কথা আছে যে মৃত যদি কোন কিছু মানত করার পর তা করে যেতে না পারে….. তাহলে তা তার সন্তানেরা নিজেরা করে মানত পুরনে মৃতকে সন্মাণিত করতে পারেন । এখানে বুঝতে হবে, শুদ্ধ নিয়তই ইবাদত…তার মানে এটাও মৃতের নিজের কর্মের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত ।

বি:দ্র: বর্ণিত হাদীসগুলোতে কোন গ্রন্থে আছে তা এ মুহুর্তে মনে আসছে না , তাই গ্রন্থের নাম উল্লেখ করতে পারলাম না ।