ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

ইলিয়াস আলীর জন্য বিএনপি যে মায়া কান্না শুরু করেছে,তা শুধু দেশের মানুষ কে বোকা বানানোর জন্য।আর দেশকে অচল করার জন্য হরতাল দেয়ার বাহানা মাত্র।তারা ইলিয়াস সাহেব এর হারানোর জন্য সরাসরি সরকারকে দায়ী করছে,মির্জা ফখরুল সাহেব এই ব্যাপারে ১০০% নিশ্চিত যে সরকারি কোন বাহিনী সরকারের সিদ্ধান্তে ইলিয়াস কে আটকে রেখেছে।আর ইলিয়াসকে যদি রাজনীতির নষ্ট প্রতি হিংসার কারনে সরকার গুম করে থাকে, তা হলে সেটা মির্জা সাহেব,খালেদা আপা,হাসিনা আপার ব্যাপার। তার কারনে আমাদের কেন কষ্ট করতে হবে?

মির্জা সাহেব বলেছেন যে, পুলিশ তাদের ঢাকা শান্তিপূর্ন হরতালে বাধা দিচ্ছে। পুলিশ বাধা দেয়ায় আমাদের সাধারন জনগনের কিছুটা রক্ষা,তা না হলে দাদা আপনাদের ভাড়া করা গুন্ডারা(সোনার ছেলেরা) দেশটাকে সুনামির মত লন্ড বন্ড করে দিত,আর শান্তি পূর্ণ হরতাল যদি আপনারা পালন করেন,তাহলে এত বাস কেন পোড়াল আপনাদের কর্মীরা?কেন হরতালের আগের দিন নিরাপরাধ বাস ড্রাইভারকে পুড়িয়ে মারলেন? কেন পিকেটারদের দিয়ে দেশে অরাজকতা সৃষ্টি করলেন?

জবাব দিতে পারবেন কি? মির্জা সাহেব..
বিএনপি সদস্য হান্নান শাহ বলেছেন ইলিয়াস কে যত দ্রুত সম্ভব ফের‍্ৎ দিতে।
যদি ইলিয়াস কে আপনারা খুজে পান,তখন কি আপনারা পারবেন মৃত বাস ড্রাইভারকে তার সদ্য বিধবা বউ এর কাছে ফিরত দিতে?পারবেন কি যারা আপনাদের পিকেটিং আঘাতে আহত হয়ে হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে আছে তাদের রক্ত ফেরত দিতে?জানি পারবেন না।আপনারা তো ঐ মানুষ গুলির জন্য সামান্য সহানুভূতি ও প্রকাশ করেন না। অনাকাঙ্খিত ঘটনা বলে এড়িয়ে যান।এই সব কারনে একদিন দেশের মানুষ ছিড়ে খুড়ে ফেলবে নষ্ট রাজনীতিবিদদের।

সেই দিনের আর বেশি দেরি নাই..ঘনিয়ে আসছে সময়।