ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

সম্প্রতি আশুলিয়া সহ বিভিন্ন ইপিজেড এলাকায় গার্মেন্টস সেক্টরে যে নৈরাজ্য তা গোটা দেশপ্রেমিক জনগণকে ভাবিয়ে তুলছে। সরকারের পরিকল্পনাহীন বক্তব্য ও মন্তব্য এই সেক্টরে নৈরাজ্য আরও বৃদ্ধি পেয়েছে। পুলিশি এ্যকশন অপরিপক্ব হওয়ায় সাধারণ শ্রমিকরা আরও ফুসে উঠেছে। কে বা কারা এই নৈরাজ্যের পিছনে মদদ যোগাচ্ছে সরকার সে বিষয়টি গুরুত্ব সহকারে খুজে না বের করে ঢালাও ভাবে ঘরে ঘরে পুলিশি নগ্ন হামলার মধ্য দিয়ে গোটা আশুলিয়া এলাকা যুদ্ধের ময়দানে পরিনত করেছে। আর মালিক পক্ষ গার্মেন্টস বন্ধ করে যারা নেপথ্যে গার্মেন্টস বন্ধ চেয়েছিল তাদের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা আরও বৃদ্ধি করার জন্য সহায়ক হয়েছে। আমরা চাই সরকার অতি দ্রুত গার্মেন্টস সেক্টরের অরাজকতা বন্ধ করুক এবং যারা প্রকৃত পক্ষে নেপথ্যে মদদ দিচ্ছে তাদের চিহ্নিত করে গ্রেফতার করুক।

সাধারণ শ্রমিকদের উপর পুলিশি নির্যাতন বন্ধ করুক। বৈদেশিক মুদ্রা অর্জনে গার্মেন্টস সেক্টর যে বিপ্লব ঘটিয়েছে সেই বিপ্লব যেন অব্যাহত থাকে, একজন সাধারণ নাগরিক হিসেবে এই আমাদের প্রত্যাশা।