ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

সময়টা বর্ষাকাল চলছ। আকাশে মেঘ নেই কিন্তু বিবেকের প্রতিটি স্তরে মেঘে ঢাকা আছে আমাদের প্রিয় মেঘের জন্য।

প্রিয় মেঘ, আমরা সবাই ব্যার্থ হয়েছি, আমাদের বক্তব্য, দাবী প্রতিদিন কোন না কোন মিডিয়াতে প্রচার ও প্রকাশ হচ্ছে। মানুষ দেখছে, আমাদের প্রিয় সহকর্মী সাগর-রুনির জন্য কি কান্না, কি চিৎকার। তার পরেও আমরা ব্যার্থ কারণ আমরা আমাদের কথা সরকারের কর্ণ কুহরে পৌছাতে পারিনি। বরং আমাদেরই পরিবারের এক কর্তা সাগর-রুনির চরিত্র হরণ করে বক্তব্য দিয়ে দেশে বিদেশে নিজেকে খল নায়ক হিসেবে প্রকাশ করেছেন। আমরা সেখানেও যথাযথ প্রতিবাদ করতে পারিনি।

তোমার শুভ জন্ম দিনে তোমাকে কান্না ছাড়া আর কিছু উপহার দিতে পারিনি। পারিনি খুনিদেরকে চিহ্নিত করে শাস্তি দিতে। আমরা সকল ক্ষেত্রে ব্যার্থ হয়েছি। তাইতো তোমার কষ্টের ঘা না শুকাতেই যশোরের গ্রামের কাগজের প্রিয় সহ-কর্মী জামাল উদ্দীন ভাইকে হারালাম। কি নৃশংস ভাবে সন্ত্রাসীরা তাকে হত্যা করলো। আমরা দায়সারা বিবৃতি আর প্রতিবাদ দিলাম। এছাড়া আর কি বা করতে পারি। বিডিনিউজে সন্ত্রাসীদের হামলা হল, সাংবাদিকরা রক্তাক্ত হল, আমাদের প্রতিবাদের ভাষা যেন ভুলে গেছি। আমরা ৫২’এর প্রতিবাদ করতে এখন আর জানি না।

প্রিয় মেঘ দিন, সময় বছর কেটে একদিন তুমি অনেক বড় হবে। সেদিন আমাদের এই চরম ব্যার্থতার জন্য আমাদের দিক থেকে মুখ ফিরিয়ে নেবে। তোমার কষ্ট আমাদের হৃদয়ের গভীরে আঘাত করেছে ঠিকই। কিন্তু প্রতিবাদ করতে আমরা ভুলে গেছি। তাই আমাদের কাউকে তুমি ক্ষমা করো না।