ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

ভারত তার যত রকমের চাহিদা ছিল তার প্রায় সব কিছুই বর্তমান সরকারের কাছ থেকে আদায় করে নিয়েছে। দেবার মত তেমন কিছুই দেয়নি। তিস্তার পানি নিয়ে কম পানি ঘোলা হয়নি। স্বয়ং প্রধানমন্ত্রী মমতার বাঁধার কারনে আমাদের ন্যায্য দাবী অনুসারে তিস্তার পানি দিতে পারেনি। এখন আবার সেই মমতা প্রনব বাবুর রাষ্ট্রপ্রতি হবার পথে বাধার সৃষ্টি করছে। আমরা জানি প্রনব বাবুর পরিবারের সাথে আমাদের বর্তমান প্রধানমন্ত্রীর ব্যাক্তিগত সম্পর্ক আছে। সেই সুবাধে যদি বর্তমান সরকার প্রনব মুখার্জির কাছ থেকে আমাদের যে দাবী তা আদায় করতে পারেন তাহলে প্রনব বাবু রাষ্ট্রপ্রতি হলে আমাদের সার্থকতা আর যদি দিল্লির মসনদে বসে প্রনব বাবু আমাদের কথা ভুলে যায় তাহলে আমাদের বলার কিছু নেই ।

ভারতে যে পদ্ধতিতে রাষ্ট্রপ্রতি নির্বাচিত হয় তাতে প্রনব বাবু যে রাষ্ট্রপ্রতি তা এখন সময়ের ব্যাপার । তাই এখন থেকেই প্রনব বাবুর সাথে আমাদের যোগাযোগ করতে হবে । ভারতে এই প্রথম একজন বাঙ্গালী রাষ্ট্রপ্রতি হচ্ছে এর সঠিক সদ্ব্যবহার আমাদের করতে হবে । শুধু তিস্তার পানি নয় ভারতের সাথে আমাদের অভিন্ন যত নদী আছে তার সব গুলির যেন ন্যায্য পানি আমরা পেতে পারি তার ব্যবস্থা করতে হবে। আমাদের বানিজ্য ঘটতি কিভাবে কমানো যায় সেই চেষ্টা করতে হবে। ছিট মহলের সমস্যার সমাধান করতে হবে। সীমান্তে বাংলাদেশীদের হত্যা বন্ধ করতে প্রনব বাবুর সাহায্যে নিতে হবে। মোট কথা কোন অযুক্তি কিছু আমরা চাই না আমরা চাই প্রনব বাবু এই যে ভারতের রাষ্ট্রপ্রতি হচ্ছে তার সুযোগে আমাদের ন্যায্য দাবী গুলি প্রতিষ্ঠা করা এবং আদায় করা । যেহেতু প্রনব বাবু বাংলাদেশ সম্পর্কে সবচেয়ে ভাল জানেন । আমাদের স্বাধীনতা থেকে শুরু করে সব কিছুই তিনি খুব ভালভাবে জানেন তাই তাকে দিয়েই আমাদের সমস্যার সমাধান করতে হবে। প্রনব বাবু ক্ষমতায় থাকতে আমরা যদি আমাদের দাবী গুলি পুরুন করতে না পারি তাহলে কেয়ামতের আগে ভারত আমাদের ন্যায্য দাবী মেনে নেবে বলে মনে হয় না।