ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

ঘটনাটা সবার সাথে শেয়ার করার জন্যই বলছি। এর আগে গত বিশ বছর ঢাকা শহরে থাকা কালে কোন সময়ই ছিনতাইকারীর কবলে পরিনি বা চোখের সামনে ছিনতাই হতে দেখিনি । আমার নিকট অনেক আত্নীয় ছিনতাইকারীর কবলে পরেছে তবে মহান আল্লাহর রহমতে আমার সেই অভিজ্ঞতা নেই । তবে গত সপ্তাহে আমার চোখের সামনে ছিনতাই এর ঘটনা ঘটল। ঢাকা শহরে অহরহ ছিনতাই হয় তাই এ নিয়ে লেখার কি আছে তবে আমার কাছে মনে হল আমার সামনে যে ছিনতাই হল তা অভিনব তাই সবাইকে সতর্ক করতেই সেই ঘটনা খুলে বলছি । গত বৃহস্পতি বার আনুমানিক বেলা ১২টায় আমি গুলিস্তানে দাঁড়িয়ে আছি । আমার মত অনেক দাড়িয়ে আছে হঠাৎ আমার সামনে রাস্তার উপর চারটি যুবক ছেলে একজনকে উচু করে ধরে আছে । আমি মনে করলাম লোকটি হয়ত অসুস্থ তাই তারা ধরে তার সেবা করছে এবং মনে করলাম যেহেতু চারজন আছে তাই আমি আর সামনের দিকে গেলাম না । হঠাৎ দেখলাম লোকটা নিচে পরে গেল আর ঐ চারজন দ্রুত মানুষের মধ্যে মিলিয়ে গেল। এবার আমি সহ কয়েকজন এগিয়ে গেলাম লোকটার কছে । আমরা যাবার পর লোকটি আস্তে আস্তে উঠে বসল এবং আমাদের জানাল ঐ যুবকগুলো ছিল ছিনতাইকারী তার কাছ থেকে টাকা এবং মোবাইল নিয়ে গেছে। আমি হতবাক হয়ে গেলাম , চোখের পলকে খুবই দ্রুত ঘটনাটা ঘটল। এরপর আরো কয়েকজন বললে গুলিস্তান, পল্টন মোড়ে এই ধরনের ঘটনা বেশী ঘটে।

সবাইকে সাবধান করে দিলাম আর কেউ যদি টাকা পয়সা সাথে নিয়ে চলাফেরা করেন তাহলে অবশ্যই সাথে একজন নিয়ে নিবেন সে হয়ত আপনাকে সাহায্যে করতে পারবে আর তার চিৎকারে অনেক পথচারী আপনাকে সাহায্যে করতে পারবে। মজার ব্যাপার ঘটনা যেখানে ঘটেছে তার মাত্রই অল্প দূরে পুলিশ দাড়িয়ে ছিল তারা এদিকে খেয়ালই করেনি। আমার নয় এ ধরনের ঘটনা দেখার অভিজ্ঞতা নেই তাই বুঝতে পারিনি তাই বলে তারা এমন নীরব দর্শক হয়ে থাকবে, তাই বলছি নিজের নিরাপত্তা নিজেকে ঠিক করতে হবে। তাই টাকা নিয়ে কাজে বের হলে অবশ্যই সাথে পরিচিত একজন রাখবেন , প্রয়োজনে টাকাটা দুই জনের কাছে ভাগ করে রাখবেন । ছিনতাইকারীরা যেমন কৌশল অবলম্বন করে আমাদেরকে তেমন কৌশল অবলম্বন করতে হবে এবং প্রতিরোধ করতে হবে।