ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

খেলাধুলার প্রতি আমার ঝোক সেই ছোটকাল থেকে। মূলত ৮৬ সালের বিশ্বকাপ থেকে আমার ফুটবল খেলা দেখা শুরু আর ১৯৮৭ সালের বিশ্বকাপ ক্রিকেট থেকে আমার ক্রিকেট দেখা শুরু। ঝোকটা এখনো আছে । আগে নিজের অভিমতটা প্রকাশ করতে পারতাম না তবে বেশ কয়েক বছর যাবত টুইটার বা আমার নিজস্ব ব্লগে বিভিন্ন খেলা নিয়ে আমার নিজস্ব অভিমত এবং ধারনা প্রকাশ করি। এবার ইউরো নিয়ে এ পযর্ন্ত টুইটারে দুইটা মতামত দিয়েছি যার মধ্যে একটা সঠিক হয়েছে আর একটা ভূল হয়েছে। আজকে আমার বাজি স্পেনের পক্ষে। ইতালীর বালাতোলি, পিরলো আর বুফনকে লড়তে হবে স্পেনের প্রায় ১১ জন খেলোয়ারের সাথে । স্পেনের আছে জাভি , ইনেস্তেয়া , জাভি আরসালনো , তোরেস , ফ্রেব্রিগাস , রামোস , জেরাড পিকে , বুসকেট, পেড্রো আর ইকার ক্যাসিয়াসের মত খেলোয়ার । স্পেনের যে কোন খেলোয়ার যে কোন সময় খেলার চেহারা পাল্টে দিতে পারে। তবে ডেল বক্সের মাথা ব্যাথার কারন হতে পারে রামোস। রামোস মাথা গরম করে মাঝে মধ্যেই লাল কার্ড দেখে দলকে বিপদে ফেলে দেয় । গত ম্যাচে একবার হলুদ কার্ড পেয়েছে । রিয়াল মার্দিদ এবং হোসে মরিনহোকে রামোস বহুবার বিপদে ফেলেছে। মূলত রামোস , বুসকেট এবং জেরার্ড পিকেকে আজকে বালাতোলি , ডি রোসি এবং পিরলো কে আটকাতে হবে।

এদের কে যদি আটকে রাখা যায় তাহলে স্পেনের বিজয়টা খুব সহজ হবে কারন বুফন ছাড়া ইতালির ডিফেন্সে তেমন খেলোয়ার নেই যারা স্পেনের আক্রমন কে রুখতে পারে। একা বুফন কতক্ষন স্পেনের আক্রমন রুখবে যেখানে স্পেনের পক্ষে কে যে গোল করবে তা কেউ বলতে পারবে না। সবার চোখ যখন থাকবে জাভি , ইনেয়েস্তা , তোরেস আর ফ্র্যাব্রিগাসদের প্রতি তখন বুসকেট বা জাভি আরসালনোরা বসে থাকবে না তাই ইতালিকে স্পেনের ক্যাসিয়াস বাদে সবাইকে রুখতে হবে । ইতালির পক্ষে এটা কি সম্ভব না বুফনের পক্ষে সম্ভব ।