ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

আমাদের দেশে সাধারন মানুষ মোটামুটি কম কথা বলে । আমাদের কৃষক, শ্রমিক আর সাধারণ মানুষ কাজ করে এ দেশকে বাঁচিয়ে রাখছে। আমাদের কৃষক বাম্পার ফলন দিয়ে এ দেশকে টিকিয়ে রাখছে । আমাদের শ্রমিকরা পরিশ্রম করে বিদেশী মুদ্রা অজর্ন করছে আর আমাদের দেশের সাধারণ, গরীব ঘরের ছেলে পরিশ্রম করে বিদেশ থেকে টাকা পাঠাচ্ছে। এদের রক্ত পানি করা জীবনের উপর মূলত বাংলাদেশ দাড়িয়ে আছে । অপর পক্ষে আর একটা দল আছে যারা শুধু বেশী কথা বলে দেশের বারোটা বাজিয়ে দিচ্ছে। তাদের বেশী কথার জন্য শেয়ার বজার শেষ। তাদের বেশী কথার জন্য পদ্মা সেতু হবে না। তাদের বেশী কথার জন্য সারা বিশ্ব আমাদের থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছে তবু তাদের বেশী কথা বন্ধ হবে না । সবাই পাল্লা দিচ্ছে কে কার চেয়ে বেশী কথা বলতে পারে। একেবারে উপর থেকে নীচ পর্যন্ত এ দেশের নেতারা বেশী কথায় অভ্যস্ত হয়ে গেছে। আর যারা বেশী কথা, বাচালগিরি করতে পারে না তারা ঝড়ে পরছে। কোথায় যাচ্ছে আমাদের দেশ। অন্যায়ের প্রতিবাদ করা ভুলে গেছে মানুষ কারন প্রতিবাদ করলে বিপদে পরতে হয়। আগে সৎ মানুষের সমাজে দাম ছিল আর এখন অসৎদের দাপটে সৎ মানুষদের কোন স্থান নেই । কবি কবে বলে গেছে আমাদের দেশে হবে সেই ছেলে কবে কথায় না বড় হয়ে কাজে বড় হবে। কবি সাব সেই আদি কালে আক্ষেপ করে কথায় না কাজে বড় ছেলের জন্য আকুতি করেছেন আর আমরা আজ কথায় না কাজে বড় ছেলের চেয়ে শুধু কথা কম বলা ছেলে চাচ্ছি যারা আসলে একটু কথা কম বলবেন । এই দেশের কথা বাজরা যে কি করতে পারবে তা আমরা হারে হারে টের পাচ্ছি তাই তাদেরকে বিনীত অনুরোধ এখনো মুখে লাগাম দিন আর নয়ত সাধারন জনগন একদিন ঝাঁটার পিটান দিয়ে মুখ বন্ধ করে দিবে। ঝাঁটার পিটান চান না কথা কম বলবেন । আমি আপনাদের নিয়ে ভয়ে আছি না জানি কখন রাস্তা ঘাটে কথাবাজরা পিটানের মধ্যে পরে যান তাই সবাইকে সাবধান করছি দয়া করে কথা কম বলে দেশের জন্য কিছু করুন । সময় ফুরিয়ে যাচ্ছে কালো বিড়াল , সাদা বিড়াল , সাধু , পীর, দরবেশ, বড় নেতা, পাতি নেতা সবাই সাবধান ।