ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

আমি কি রকম আওয়ামী লীগ চাই শিরোনামটা দেখে সবাই হয়ত বলবে আমি কোন মহান ব্যাক্তি যে আমার চাওয়া মত আওয়ামী লীগ হবে বা হতে হবে। আসলে তা নয় । যেহেতু নিজেকে সচেতন নাগরিক হিসেবে দাবী করি আর সব সময়ই দেশের মঙ্গলের কথা চিন্তা করি তাই সরকারী দল এবং বিরোধী দল কেমন হলে দেশটা আরো অগ্রসর হতে পারত তাই চিন্তা করি । আর সে চিন্তা থেকেই কেমন আওয়ামী লীগ আমি চাই তা স্বপ্ন দেখি । সেই স্বপ্নই আপনাদের সামনে তুলে ধরতে চাই। খুব সোজা কথায় যদি বলি তাহলে এই সরকারের বিভিন্ন কাজের সমালোচনা না করে শুধু এখন বর্তমান প্রেক্ষাপটে আমি আওয়ামী লীগকে কি ভাব দেখতে চাই তাই বর্ননা করব। প্রথমত যতো তাড়াতারি সম্ভব আওয়ামী লীগকে তত্বাবধায়ক সরকার ব্যাবস্থা ফিরিয়ে আনতে হবে , প্রয়োজনে আগের ব্যাবস্থার মধ্যে কোন ত্রুটি থাকলে তা দূর করতে হবে।

সরকারের সকল এমপি এবং মন্ত্রীর সম্পদের হিসাব জন সমুক্ষে প্রকাশ করতে হবে। যে সকল মন্ত্রীদের বিরুদ্ধে দূর্নীতি সহ বিভিন্ন অভিযোগ আছে তাদের বাদ দিতে হবে। ব্যাক্তিগত কারনে কারো বিরুদ্ধে বিদ্বেষ পরিহার করতে হবে। ব্যাক্তিগত সফলতাকে স্বাগত জানাতে হবে। অহেতুক নানান জটিলতা সৃষ্টি করা হয়েছে তা দূর করতে হবে। প্রফেসর ইউনুসের সাথে যে আচরন করা হয়েছে তা নিরসন করতে হবে। বিশ্বব্যাংক , গ্রামীন ব্যাংক , হলমার্কের কেলেংকারী সঠিক ভাবে নিরসন করতে হবে। আওয়ামী লীগকে আওয়ামী লীগ দিয়ে পরিচালিত হতে হবে। বামদের আগ্রাসন থেকে তাদের বের হয়ে আসতে হবে। বিরোধী দলের সাথে সৌজন্যমূলক সম্পর্ক স্থাপন করতে হবে । তৃতীয় যে কোন গনতান্ত্রিক শক্তিকে সাদরে গ্রহন করতে হবে ।

আওয়ামী লীগকে বুঝতে হবে জনগন আগের মত নেই তারা অনেক বেশী সচেতন তাই কথা কম বলতে হবে । প্রধানমন্ত্রীকে যে কোন ভাবেই হউক সাধারন মানুষের মনের কথা বুঝতে হবে। এখনই সব উপদেষ্টাদের বিদায় করতে হবে , যেহেতু তাদের কোন কাজের জন্য কারো কাছে জবাবদিহিতা নেই । আওয়ামী লীগের প্রবীন নেতাদের মন্ত্রী পরিষদে নিয়োগ দিতে হবে । মাত্র দেড় বছরে হয়ত অনেক কিছু করা সম্ভব নয় তবুও যদি আওয়ামী লীগ অন্তত পক্ষে এই কাজ গুলো করে তাহলে হয়ত আগমী নির্বাচনে তারা জনগনের কাছে ভোট চাইতে পারবে আর যদি এখন যে ভাবে চলছে সে ভাবে চলে তাহলে তাদের চরম ভড়াডুবি হবে । তাই আমি আওয়ামী লীগকে যে ভাবে দেখতে চাই সাধারন মানুষ ও হয়ত সে ভাবেই দেখতে চায় । মানুষ পরিবর্তনের আশা নিয়ে এই সরকারকে ভোট দিয়েছে তবে বাস্তবতা হল পরিবর্তন হয়নি বরং কোন ক্ষেত্রে তা আগের থেকে খারাপ হয়েছে তাই এখনই যদি ব্যবস্থা গ্রহন না করা হয় তাহলে চরম খেসারত দিতে হবে।