ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

আর টিভির সাংবাদিক বায়েজিদ আহমেদ সাংবাদিকতার জীবনে সবচেয়ে সাহসী এবং যুগান্তকারী রিপোর্ট করেছেন। যখন এপিএস ফারুকের গাড়ীর ড্রাইভার আজমকে কেউ খুজে পাচ্ছিল না তখন তিনি সাংবাদিকতার পেশাদারিত্ব দেখিয়ে সেই ড্রাইভারের সাক্ষাতকার প্রচার করে শুধু নিজেকে উচুতে আসীন করেননি গোটা সাংবাদিকদের মাথাকে উচু করেছেন। এখন বিভিন্ন ভাবে তাকে হুমকি দেওয়া হচ্ছে । সাংবাদিক বায়েজিদ আহমেদের পাশে তার পরিবারের পাশে আমাদের দাড়াতে হবে। সাগর রুনি কে আমরা আর ফিরে পাবোনা তাই অপঘাতে যেন আর কোন সাংবাদিককে হাড়াতে না হয় তার জন্য আমাদেরই সচেতন হতে হবে। আমি সকল সাংবাদিক ভাইদের সবিনয় অনুরোধ করছি আসুন আমরা সবাই বায়েজিদ আহমেদের পাশে দাড়াই তাকে সাহস দেই এবং যারা তাকে হুমকি দিচ্ছে তাদের বিরুদ্ধে প্রতিরোধ গড়ে তুলি। আমার বিশ্বাস বায়েজিদ আহমেদের পথ ধরে আরো অনেক অজানা ঘটনার , না জানা ঘটনার সত্য আমাদের সামনে বের হয়ে আসবে । এমন একদিন আসেব যখন সাংবাদিক ভাইয়েরাই সাগর রুনি হত্যা , ইলিয়াস আলী গুমের রহস্য উন্মোচন করবে ইনশায়াল্লাহ।