ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

এবার মেডিকেল ভতি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে না। জিপিএ ভিত্তিতে ভতি করানো হবে বলে স্বাস্থ্য মন্ত্রী জানিয়েছেন। সবোর্চ্চ জিপিএ ধারীদের নিয়ে ভতি কাযক্রম সস্পূণ হবে। স্বাস্থ্যমন্ত্রীর কি সুন্দর স্বাস্থ্যবান সিদ্ধান্ত!

আমার মনে হয় এই ঘোষণার পর থেকে বাংলাদেশের এই চিকিৎসা খাত মেধাশূন্য হয়ে পড়বে। শুধুমাত্র জিপিএ তে ভালো হলেই কেবল মেডিকেলে পড়তে পারবে আর জিপিএ খারাপ হলে পারবে না এটা নতুন বৈষম্য আর বিতর্কের জন্ম দিল। গ্রামের কোন গরীব মেধাবী আর ডাক্তারি পড়তে পারবে না শুনে অনেক খারাপ মনে হচ্ছ্। সরকারের এই ধরনের সিদ্ধান্তে বাংলাদেশের অসংখ্য কম জিপিএ পাওয়া স্বপ্নবাজরা তলিয়ে যাবে অপমেধার জোরে।

আমি জানি না তারা কোন পদ্ধতিতে এই ধরনের ভতি সম্পূর্ণ করবে। তবে এ নিয়ে ভবিষৎ সমস্যার সাড়ি বাধবে তাতে কোন সন্দেহ নেই।

অবশ্যয় জিপিএ-৫ প্রাপ্তরা এই দিক থেকে অনেক এগিয়ে থাকবে তাতে কোন সন্দে নেই। এই যদি হয় দেশের মেধার মূল্যায়ন তাহলে খারাপ রেজাল্টকারীরা আত্মহত্যা করবে। যারা কোন কারনে খারাপ রেজাল্ট করেছে তাদের কাছে বিষয়টি অনেক শোকবহ। আমরা চাই মেধার মূল্যায়ন করে ডাক্তার শিক্ষায় এগিয়ে চলুক। কোন গরু-ছাগল দিয়ে যেন এই প্রতিষ্ঠানগুলো না চলে।

তথ্য সূত্র: