ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

কতদিন আগে বাংলাদেশের ডিজিটাল ’পালকি’! নামে একটি পোস্ট লিখেছিলাম।যেখানে আমি উড্ডয়নেনর আগে পালকির ত্রুটি ধরা পড়ার কথা বলেছিলাম। দ্বিতীয় উড়োজাহাজ অরুণের আলোতে ও এবার যান্ত্রিক ত্রুটি ধরা পড়েছে যে কারণে উড়োজাহাজটি নির্ধারিত সময়ে ঢাকায় পৌছুতে পারেনি। টেস্ট ফ্লাইংয়ের সময় উড়োজাহাজের বৈমানিকের পেছনের আসন থেকে বিকট শব্দ শোনা গিয়েছিল। বোয়িংয়ের প্রকৌশলীরা দুবার ত্রুটি মেরামত করার পর অরুনের আলো তৃতীয়বার উড্ডয়নের সময় আর আওয়াজ শোনা যায়নি। উড়োজাহাজ উড্ডয়নরত অবস্থায় বৈমানিক রেডিও কমিউনিকেশন সিস্টেমের মাধ্যমে নিয়ন্ত্রণ কক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে থাকে, সিস্টেমে কোনো ত্রুটি থাকলে তা বৈমানিকসহ যাত্রীদের জন্য ভয়াবহ বিপদ এমনকি মৃত্যু ও ডেকে আনতে পারে।

আমার প্রশ্ন হচছে শুরুতেই যার এই অবস্থা তা কি করে বাংলাদেশ বিমানকে আর ও যুগপযোগী ও লাভজনক করে তুলবে??