ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

 

প্রাপ্তি আর অপ্রাপ্তির নানা হিসাবে ২০১১ সাল বেশ বৈচিত্র্যময়।২০১১ সালে অন্যান্য বছরের তুলনায় বাংলাদেশসহ সারাবিশ্বে ছোট বড় অনেক আলোচিত ঘটনা ঘটেছে যা হয়ত ২০১২ সালের শুরুতে এসে আমরা ভুলে যেতে বসেছি।সেই সব ছোট বড় আলোচিত সব ঘটনা নিয়ে আমার এই লেখা ফিরে দেখা ২০১১ !!!!

১/
আলকায়েদা নেতা ওসামা বিন লাদেনের মৃত্যু ছিল এই বছরের সবচাইতে আলোচিত খবর।প্রায় এক দশক ধরে কোটি কোটি ডলার খরচ করে হন্যে হয়ে খুজতে থাকা বিন লাদেনকে অবশেষে ধরতে সক্ষম হয় বারাক ওবামার আমেরিকা।এটাকে ওবামার সবচেয়ে বড় বিজয় হিসেবে দেখা হয়।পাকিস্তানের রাজধানী ইসলামাবাদের কাছে অভিজাত এলাকা বলে খ্যাত এবোটোবাদের প্রাচীর ঘেরা এক বাড়িতে অত্যন্ত গোপনীয়তার সাথে মাকি’ন সেনাবাহিনীর সবচাইতে দক্ষ বিশেষায়িত ইউনিট নেভি সিল অভিযান চালিয়ে তাকে হত্যা করে।

২/
আরব বিশ্বের সবচাইতে জনবহুল দেশ মিশরে প্রায় তিন দশক ধরে ক্ষমতায় থাকা হোসনি মোবারক তার গদি হারান এই বছরেই।২৫ জানুয়ারিকে বিপ্লব দিবস ঘোষনা করে ঐদিন লাখ লাখ মানুষ মোবারকের পদত্যাগের দাবিতে মিশরের তাহরির স্কয়ারে সমবেত হয়।ঘন আন্দোলনের মুখে অবশেষে ১১ ফেব্রুয়ারি হোসনি মোবারক ক্ষমতা থেকে সরে দাড়াতে বাধ্য হন।

৩/
২য় বিশ্বযুদ্ধের পর ২০১১ সালের ১১ মাচ’ জাপানের জন্য ছিল ভয়াবহ একটা দিন।ঐ দিন জাপানে ৯ মাত্রার একটি ভূমিকম্প আঘাত হানে।একি সাথে আঘাত হানে সুনামি ও।এ দুটি মিলে জাপানে একটি মারাত্বক প্রাকৃতিক বিপয’য়ের সৃষ্টি করে যাতে প্রায় ১৬ হাজার মানুষ প্রান হারায়।ক্ষয়ক্ষতির পরিমান দাড়ায় কয়েকশ বিলিয়ন ডলারে।পারমানবিক বিদ্যুৎ উৎপাদন স্থাপনা ফুকুশিমা দাইচিতে সৃষ্টি হয় ফাটল এবং তেজষ্ক্রিয়তা ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা সৃষ্টি হয়।

৪/
তেলসমৃদ্ধ দেশ লিবিয়ায় চার দশক ধরে ক্ষমতায় থাকা মুয়াম্মার গাদ্দাফির পতন ছিল এ বছরের অন্যতম আলোচিত ঘটনা।গনতন্ত্রের দাবিতে আরববিশ্বে ছড়িয়ে পড়া বিক্ষোভেই গাদ্দাফির পতনে ভূমিকা রাখে।প্রথমে লিবিয়ার উত্তরাঞ্চলে বিদ্রোহ শুরু হলে গাদ্দাফি তা কঠোর হস্তে দমনের নিদে’শ দেন।তার দমনাভিযান থেকে বেসামরিক জনগনকে রক্ষা করতেই জাতিসংঘ লিবিয়ায় বিদ্রোহীদের সহযোগিতায় বিদেশী আগ্রাসনের অনুমতি দেয়।ন্যাটো অভিযান শুরু করলে অবশেষে রাজধানী ত্রিপোলির পতন হয় এবং গাদ্দাফি আত্বগোপনে চলে যান।শেষপয’ন্ত গাদ্দাফির জন্মশহর সিতে’ই বিদ্রোহীদের হাতে আহত অবস্থায় ধরা পড়েন গাদ্দাফি।শেষে তাকে নিমমভাবে গুলি করে হত্যা করা হয়।

৫/
শান্তির দেশ হিসেবে পরিচিত নরওয়েতে ২য় বিশ্বযুদ‌ধের পর তার নৃশংসতম ভয়াবহ ঘটনা ঘটে এই বছরেই।২২ জুলাই প্রথমে নরওয়ের রাজধানী অসলোতে প্রধানমন্ত্রীর দপ‌তরের কাছে একটি গাড়ি বোমা বিস্ফোরনে আটজন নিহত হয়।এর ঘ‌ন্টা দুয়েক পরই নরওয়ের ছোট্র দ্বীপ উটোয়াতে তরুন রাজনৈতিক কমী’দের একটি সম্মেলনে ব্রেইভিক নমের এক যুবক স্বপ্রণোদিত হয়ে গুলি কর হত্যা করে অনেক নিরীহ মানুষকে।

৬/
সমগ্র এশীয় ক্রিকেট প্রেমীদের জন্য এবছরটা ছিল অনেক আনন্দদায়ক কারন বিশ্বকাপ ক্রিকেটের এবারের আসর বসে এশিয়াতেই। বিশ্বকাপ ক্রিকেটের জাকজমক পূণ’ উধ্বোধন হয় বাংলাদেশে আর বিশ্বকাপ ক্রিকেটের পদা’ নামে ভারতে।এই বিশ্বকাপে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে ভারত ২য় বারের মত চ্যাম্পিয়ন হওয়ার গৌরব অজ’ন করে।অনেক বছর পর বিশ্বকাপটা উপমহাদেশেই থাকল।

৭/
ফিলিস্তিনীদের স্বপ্নের থমকে যাওয়া ছিল এই বছরের আর একটি আলোচিত বিষয়।এই বছরেই াতিসংঘে ফিলিস্তিনী কতৃপক্ষ তাের স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবি উথ্থাপনের সিদ্ধান্ত নেয়।ইসরায়েল ও যুক্তরাষ্ট্র এই উদ্যোগের কঠোর বিরোধিতা করে।অবশেষে সেপ্টেম্বরে জাতিসংঘ অধিবেশনে ফিলিস্তিনি নেতা মাহমুদ আব‌বাস স্বাধীন রাষ্ট্রের দাবি নিয়ে এক আবেগঘন বক্তব্য দেন।

৮/
ভারতের গান্ধিবাদী সমাজকমী’ আন্না হাজারের দুনীতি রোধে অনশন সারাবছর ধরে বিশ্বকে মাথিয়ে রাখে।ভারতের পালা’মেন্টে একটি স্বাধীন লোকপাল বিল পাসের দাবিতে গত বছরের আগষ্টে টানা নয়দিন অনশ করেন সেনবাহিনীর সাবেক এই গাড়িচালক।বৃদ্ধ সমাজকমী’ আন্না হাজারের বারবার অনশন কম’সূচী দেওয়া ভারতের ক্ষমতাসীন এই জোট সরকারকে একটি বিব্রতকর অবস্থায় ফেলতে সক্ষম হয়।

৯/
আফ্রিকার বৃহত্তম দেশ সুদান এইবছরই ভেঙ্গে দুটি রাষ‌ট্রে পরিনত হয়।বিশ্ব মানচিত্রে নতুন দেশ হিসেবে দক্ষিন সুদানের আত্বপ্রকাশ ঘটে।এই বছরের ৯ই জুলাই সুদান বিভক্ত হয়।আর এর ফলে বিশ্বের ১৯৫ তম, জাতিসংঘে স্বীকৃত ১৯৩ তম এবং আফ্রিকার ৫৪ তম স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে দক্ষিন সুদান পরিচিতি পায়।

১০/
পশ্চিমবঙ‌গের অগ্নিকন্যা ও দিদি হিসেবে পরিচিত মমতা ব্যানাজি’র পশ্চিমবঙ‌গের মুখ্যমনত্রী হিসেবে ক্ষমতা গ্রহন ছিল এই বছরের আর একটি আলোচিত বিষয়। মমতা ব্যানাজি সংসদীয় রাজনীতিতে ২৭ বর পর পশ্চিমবঙ‌গের প্রথম নারী এবং অষ্টম মুখ্যমনত্রী হিসেে নিবা’চিত হন।

১১/
২০১১ সালের ২৯ এপ্রিল ছিল প্রিন্স উইলিয়ামস ও কেট মিডলটন এর বিয়ে যা সারাবিশ্বকে অন্যরকম আনন্দে মাতিয়ে রাখে।ওয়েস্টমিনিষ্টার এবেতে ছিল সাজ সাজ রব।এই বিয়েতে বিশ্বের সবচেয়ে নামীদামী ব্যক্তিত্বরা উপস্তিত ছিলেন।