ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

 

হ্যা শিরোনামটি আমাদের দেশে প্রচলিত একটি প্রবাদ,আর এটা এই লেখায় প্রয়োগ করাকে যথাথ’ মনে হল জানি না আপনাদের কাছে কেমন মনে হবে। ও…আমি আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতের কথা বলছি, যারা বহিবি’শ্বে নিজেদের এক পরাশক্তি হিসেবে উপস্থাপন করতে চাইছে, যারা নিজেদেরকে সবদিক থেকে স্বয়ংসম্পুন’ ভেবে কিছুটা অহংকার বোধ করে অথচ তাদের অভ্যন্তরীন সাবি’ক অবস্থা রীতিমত আতকে উঠার মত।

যে ভারতপরাশক্তি হিসেবে প্রতিষ্ঠা পাওয়ার স্বপ্নে বিভোর, যে ভারত প্রতিনিয়ত বাংলাদেশ সহ সব প্রতিবেশী দুব’ল দেশগুলোর উপরে প্রাধান্য বিস্তার করার অপপ্রয়াস চালাচ্ছে সেই ভারতে প্রতিদিন ২৩ কোটি মানুষ খাবার না খেয়ে থাকে !!!! এই খবরটা সত্যিই অনেক বেশি চমকপ্রদ।

অন্যতম।দেশটির সাবি’ক পরিস্থিতি কঙ্গো, চাঁদ, ইথিওপিয়া বা বুরুন্দির মত দেশের চেয়ে ভালো হলেও সবসময় দাঙ্গা লেগে থাকা পাকিস্তান, নেপাল, উত্তর কোরিয়া ও দুভি’ক্ষ লেগে থাকা সুদানের চেয়ে ও খারাপ।

যে তিন নির্দেশককে সমন্বয় করে ইন্টারন্যাশনাল ফুড পলিসি রিসার্চ ইনস্টিটিউট গোল্ডেন হাঙ্গার ইনডেক্স (জিএইচআই) এই রিপোট’ তৈরি করেছে সেই তিন নির্দেশক হল:
১. অপুষ্টি,
২. কম ওজনের শিশু
৩. শিশুমৃত্যুর হার

দেশটিতে ক্ষুধার্তের হার দিনকে দিন বেড়েই চলেছে যা দেশটাকে হয়ত কোন এক সময় এগিয়ে যাওয়ার পথে অনেক বড় বাধাঁ হয়ে দাঁড়াবে।

এই সাবি’ক পরিস্তিথি চিন্তা করে ভারতের উচিত হবে পরাশক্তি হয়ে উঠার স্বপ্ন দেখার আগে নিজেদের অভ্যন্তরীন অবস্থার উন্নতি করা।তা না হলে কখন ও পরাশক্তি হিসেবে আভিভা’ব হওয়া সম্ভব না, যা আমরা বিভিন্ন উন্নত দেশের অবস্থা থেকে জানতে পারি।

আপনাদের মূল্যবান মতামত আশা করছি……………………………………..