ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

নিউজটা পড়ে অবাকই লাগল আমাদের রাজধানী ঢাকা নাকি বিশ্বের দ্বিতীয় কম ব্যয়বহুল নগরী বলে নিবা’চিত হয়েছে।যেখানে আমরা সবাই দেশের দ্রব্যমুল্য বৃদ্ধির কথা নিয়ে সরকারের বিরুদ্ধে জোর সমালোচনা চালাচ্ছি সেখানে ইকোনোমিষ্ট ইনন্টেলিজেন্স ইউনিট এর প্রকাশিত এই রিপোট’ আমাদেরকে সত্যিই ধন্ধে ফেলে দিচ্ছে।অবশ্য কারন হিসেবে বলা হয়েছে ঢাকায় খরচ না কমলেও আমাদের প্রতিবেশী কয়েকটি দেশের দৈনন্দিন খরচ বেড়ে যাওয়ায় ঢাকা দ্বিতীয় অবস্থানে চলে এসেছে।

তালিকায় প্রথমবারের মত পৃথিবীতে সবচেয়ে ব্যয়বহুল শহরের খেতাব অর্জন করে নিয়েছে সুইজারল্যান্ডের জুরিখ ,গতবছর ছিল জাপানের টোকিও । বর্তমান তালিকায় টোকিও দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। পৃথিবীতে সবচেয়ে কম ব্যয়বহুল নগরী ওমানের রাজধানী মাসকট ।

কম ব্যয়বহুল নগরীগুলো হল (ক্রমানুসারে):
১.ওমানের রাজধানী মাসকট
২.ঢাকা
৩.আলজেরিয়ার রাজধানী আলজিয়ার্স
৪.কাঠমন্ডু
৫.পানামা সিটি
৬.জেদ্দা
৭.নিউ দিল্লি
৮.তেহরান
৯.মুম্বাই
১০.করাচি

জরিপের ভিত্তি:
ইকোনোমিষ্ট ইন্টেলিজেন্স ইউনিট নামের একটি সংস্থা প্রতি বছরে 2 বার এই ধরনের জরিপ চালিয়ে থাকে। । সংস্থাটি খাবার , গৃহস্থলী দ্রব্য,পানীয়,পোশাক, ইউটিলিটি বিল,বাসাভাড়া,যাতায়াত, ,স্কুল ফি ইত্যাদি প্রায় ১৬০ ধরনের দ্রব্য ও সেবার মুল্যর উপর জরিপ পরিচালনা করে। ৫০ হাজারের মত মুল্য তালিকা সংগ্রহ করে এগুলোকে মার্কিন ডলারে কনভাট’ করা হয় । এরপর জরিপকৃত দেশগুলোর মুল্য তালিকার তুলনা করে এই ধরনের তালিকা প্রকাশ করা হয়ে থাকে ।

এই জরিপটা দেখে এর সাথে সাথে মনে আরেকটা প্রশ্ন উকি দিচ্ছে তা হল জরিপটা কি উত্তর ও দক্ষিন ঢাকা দুটাতেই চালানো হয়েছে কি না ? আর চালালে কোন অংশ কম ব্যয়বহুল জানতে ইচ্ছা করছে। যেহেতু এখন ঢাকাকে আমাদের আলাদাভাবে দুটি অংশে চিন্তা করতে হয়।এখন দুই অংশের হিসাব নিকাশ আলাদা।

যাই হোক আমাদের নতুন আর ও একটি খেতাব অর্জিত হলো । জানি না বা বুঝতে পারছি না এটা দেশের জন্য ভাল না মন্দ।

তথ্যসুত্র : স্টেট নিউজ বিডি