ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ইতিহাস বিভাগের মেধাবী ছাত্রী মারজিয়া জান্নাত সুমীর আত্মহত্যার ঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত ও অবিলম্বে দায়ী ব্যক্তির শাস্তি দাবী করেছে তার সহপাঠীরা। গতকাল বৃহস্পতিবার জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় সাংবাদিক সমিতি কার্যালয়ে আয়োজিত এক সাংবাদিক সম্মেলনে তারা এসব দাবি তুলে ধরেন। এদিকে ঘটনা তদন্তে প্রাণরসায়ন ও অণুপ্রাণ বিজ্ঞান বিভাগের অধ্যাপক ড. এস এম বদিয়ার রহমানকে তদন্ত কমিটির প্রধান করে প্রশাসন ৭ সদস্যবিশিষ্ট একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে। কমিটিকে আগামী ১ মাসের মধ্যে তদন্ত রিপোর্ট জমা দিতে বলা হয়েছে। সাংবাদিক সম্মেলনে সুমীর সহপাঠীরা দাবি করেন উদ্ভিদবিজ্ঞান বিভাগের প্রভাষক মো: মনিরুজ্জামান শিকদার সুমনের সাথে সুমীর দীর্ঘদিনের প্রেমের সম্পর্ক ছিলো। গত ২রা আগস্ট সুমীর স্নাতকোত্তর শ্রেণীর চূড়ান্ত পরীক্ষা শেষ হলে সে ঐ শিক্ষককে পারিবারিকভাবে বিয়ের আলোচনা করতে বলে। কিন্তু সুমন তাকে বিয়ে করতে অস্বীকৃতি জানালে সুমী আত্মহত্যার পথ বেছে নেয় বলে সহপাঠীরা দাবি করেন। সুমীর সহপাঠীরা অভিযোগ করেন, সুমীর নিজ হাতে লেখা ডায়েরী এবং বেশকিছু চিরকুট সুমীর কক্ষ থেকে উদ্ধার করা হলেও প্রশাসন শুধুমাত্র ডায়েরী সুমীর পরিবারের কাছে হস্তান্তর করে চিরকুটগুলো কৌশলে গায়েব করে দিয়েছে। তাছাড়া ঘটনার দুদিন পরে তদন্ত কমিটি গঠন অভিযুক্ত শিক্ষককে বাঁচানোর কৌশল বলেও তারা অভিযোগ করেন। এসময় সুমীর সহপাঠীদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন তানজীর তন্ময়, মোর্তজা মোর্শেদ রুমী, ইকরামুল হক মৃধা, সুস্মিতা তালুকদার প্রীতি প্রমুখ। এদিকে সুমীর মৃত্যুতে গভীর শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি অধ্যাপক ড. শরীফ এনামুল কবির। এক শোকবার্তায় তিনি বলেন,সুমীর মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ গভীরভাবে শোকাহত। এমন প্রতিভাবান ও মেধাবী ছাত্রীর মৃত্যুতে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় পরিবার তথা দেশের অপূরণীয় ক্ষতি হলো। তিনি সুমির আত্মার মাগফেরাত কামনা করেন। সংবাদিক সম্মেলন থেকে আগামী ১৩ আগস্ট সুমীর স্মরণে শোকর‌্যালী এবং শোকসভা থেকে তাদের পরবর্তী কর্মসূচী ঘোষণা করা হবে বলে সুমীর সহপাঠীরা জানান। একই দাবিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের ভিসি বরাবর একটি লিখিত আবেদন করেন ইতিহাস বিভাগের অধ্যাপক ড. এটিএম আতিকুর রহমান। অভিযুক্তের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়ে বিবৃতি দিয়েছে জাতীয়তাবাদী শিক্ষক ফোরামের সদস্যরা ও ছাত্র ইউনিয়ন বিশ্ববিদ্যালয় সংসদের নেতা-কর্মীরা। উলেখ্য, গত ৯ আগস্ট দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের জাহানারা ইমাম হলের ৩২৩ নং নিজকক্ষে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন সুমী।