ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

একটি বাংলাদেশ, তুমি জাগ্রত জনতা
সারা বিশ্বের বিস্ময়, তুমি আমার অহংকার।

ইতিহাস সৃষ্টির অপেক্ষয় মুশফিক বাহিনী। টান টান উত্তেজনায় আছে বাংলাদেশের ক্রিকেট পাগল জনতা। আজ বেলা ২টায় অনুষ্ঠিত হচ্ছে যাচ্ছে মিরপুর শেরে-বাংলা ষ্টেডিয়ামে এশিয়া কাপ ক্রিকেট টুর্ণামেন্ট। অল্প কদিনের ব্যবধানে দুই বর্তমান ও সাবেক বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন ভারত ও শ্রীলংকাকে হারিয়ে টাইগার বাহিনী এশিয়া কাপের ফাইনালে খেলার গৌরব অর্জন করে। বাংলাদেশ টিমের বর্তমান পারফর্মমেন্স, পে­য়ারদের বডি ল্যাঙ্গুয়েজ ও খেলার ধারাবাহিক বিজয়ই তা বলে দেয়। চুড়ান্ত পর্বেও এই ধারা বাহিকতা অর্জনই চায় দেশবাসী টাইগার বাহিনীর কাছে। খেলা উপলক্ষ দেশের সর্বস্তরের সর্বপেশার মানুষের মধ্যে উত্তেজনা ও খেলা দেখার প্রস্তুতি লক্ষ করা যাচ্ছে। যে যার জায়গা থেকে খেলা উপভোগ করার শারিরীক ও মানসিক প্রস্তুতি নিয়ে আছে। ঢাকা শহরের অফিস পাড়াও এর ব্যাতিক্রম নয়। অনেকে খেলা দেখাকে উপলক্ষ করে অফিস থেকে ছুটি নিয়েছে। অনেকে হাফ অফিস করে বসকে ম্যানেজ করে বাসায় গিয়ে খেলা দেখার প্রস্তুতি নিয়ে রাখছে। এ থেকে আমার কলিগ পারভেজও বিরত যাননি। মুড়ি, চানাচুর, টমেটো ও বাসা থেকে কিছু কাঁচা মরিচ ও পেয়াজ এনে তার প্রস্তুতি সেরেছেন। মনে হচ্ছে এ যেন এক অঘোষিত হাফ বেলা অফিস ছুটি। দিনটি বৃহস্পতিবার হওয়ায় পরের দুদিন ছুটি থাকায় এর গুরুত্ব আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। দেশের প্রধান মন্ত্রীর মাঠে গিয়ে খেলা দেখায় অনেকেই উচ্ছাসিত হয়ে মনে করছেন আজকে দিনটিতে হাফ বেলা ছুটি হলেই খুব ভাল হত। দেশ দেশ দেশ সাবাস বাংলাদেশ, যাও এগিয়ে আমার বাংলাদেশ। টাইগার বাহিনীর জন্য অনেক অনেক অনেক শুভ কামনা।