ক্যাটেগরিঃ নাগরিক সমস্যা

 

মদনপুর বাসস্ট্যান্ড একটি ব্যস্ত মহাসড়ক। এই রাস্তা দিয়ে প্রতিদিন শত শত গাড়ী ঢাকা হতে কুমিল্লা, ফেনী, চিটাগং সহ বিভিন্ন রুটে যাতায়াত করছে। যেহেতু বেশীরভাগ গাড়িই দূরপাল্লার, তাই গাড়িগুলো অত্যন্ত দ্রুতগতিতে ছুটে চলে। চোখের পলকেই গাড়িগুলো চোখের সামনে চলে আসে। জায়গাটি চৌরাস্তা হওয়ায় চারদিক থেকে গাড়িগুলো এসে এলোমেলোভাবে রাস্তা ক্রস করে। সুতরাং এই অবস্থায় রাস্তা পার হওয়া একটি দুষ্কর ও কষ্টসাধ্য ব্যাপার। যেহেতু গাড়িগুলো রাস্তার কোথাও ব্রেক করে না বা গতিও কমায় না । তাই একরকম বাধ্য হয়েই এই সিগনালটি দিয়েই প্রতিদিন রাস্তা পার হচ্ছে শত শত মানুষ। আসলে বাস্তবে এখানে কোন সিগনাল বা স্পিড ব্রেকার না থাকায় এই সিগনালটি দিয়ে রাস্তা পার হওয়াটা অত্যন্ত ঝুঁকিপূর্ণ। গাড়িগুলো চারদিক থেকে আসায় রাস্তা পাড় হওয়া মোটেই নিরাপদ নয়। যে কেউ যে কোন সময় প্রাণ হারাতে পারে।

কিছুদিন আগে এখানেই এক স্কুল পড়ুয়া ছাত্রী ও তার মায়ের করুণ মৃত্যু দেখলাম। বাস্তবে না দেখলে বোঝা যাবে না, কী ভয়ানক দৃশ্য!! কী বিভৎস মৃত্যু !! এখানে প্রায়ই এরকম দুর্ঘটনা প্রত্যক্ষ করা যায়। আর কত মানুষ জীবন দিলে এখানে একটি ওভার ব্রীজ হবে? আর কত মানুষ প্রাণ হারালে কর্তৃপক্ষের টনক নড়বে? তাই কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষন করে বলছি , মদনপুর বাসস্টান্ড এ একটি ওভার ব্রীজ দিন না হয় যত মানুষ প্রাণ হারিয়েছে তাদের জীবন ফিরিয়ে দিন।