ক্যাটেগরিঃ শিল্প-সংস্কৃতি

 
মৃৎশিল্প আজও প্রিয় কারও-কারও ঘরে।।

এদেশে মৃৎশিল্পের কদর একদম নেই যে তা কিন্তু সঠিক না। মৃৎশিল্পপ্রিয় মানুষ আজও আছে এদেশে কোনও-কোনও ঘরে। তাইতো এভাবেই এদেশে কারও-কারও ঘরে পরিবেশিত হয় খাবার প্রিয় অতিথিদের। আমারই অনুজ সুমনের ঘরটি এমনতর মৃৎশিল্পে সাজানো। সুমনের ঘরনী সুমনা, কন্যা হৃদি, সুমন নিজেও মৃৎশিল্পপ্রিয় মানুষ। সেদিন ওদের বাড়ির টেবিলে এমন করেই আমাকে পরিবেশন করা হয়েছে সিঙ্গারা, সমুচা, ডোনাট, ফল এবঙ ব্ল্যাক-কফি। আমিতো মুগ্ধচিত্ত। ধারণ করেছি দারুণ মৃৎশিল্প শোভিত টেবিলের ছবিটি।

(* পাঠকদের ভালো লাগলে তারাও সাজাতে পারেন এভাবে নিজেদের ঘরের টেবিল অথবা গৃহকোণ মৃৎশিল্পের একটু কদর করে।*)

জানুয়ারী। ২০১৬ সাল।
ঢাকা। বাংলাদেশ।