ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

সেই স্কুলদিনেই পাঠ্যবই-র বড়-বড় কবির কবিতায় প্রাণিত হয়ে প্রায় হুবহু তাঁদের অনুকরণে নিজের একটি দাঁড় করানোর প্রয়াস থেকে আজকের আমি। আমি মানে আজকের ছাপ্পান্ন বয়সের দিনান্ত ছোঁয়া নিতান্ত এক সংসারী-সামাজিক-দেশাত্মবোধ তাড়িতঃ নুরুন্নাহারশিরীন। পারিপার্শিক দায়বদ্ধতার কথা মাথায় রেখেই আমার যত লেখালিখি। মূলতঃ নিজেকে কবিতাকর্মী ভাবতেই ভালোবাসি। তথাপি যেহেতু সচক্ষে দেখা উড্ডীন বয়সে ১৯৬৯-৭১-এ স্বাধীনতার উত্তাল দিনের দিনপঞ্জি সততঃই পাঁজর জাগায় বড়ো তাইতো প্রায়শঃ সেইসব অজর জলছবিমালা আমার সকল লেখালিখির প্রধান উতস হয়ে ওঠে। কিছুতে যেন এড়াতে পারিনা তারে। রাত্রিদিনের সহস্র বাতাসে সে সহস্রবার উড়ে-পুড়ে আসে আর বলেঃ কিগো মনে পড়ে? মনে পড়ে? আমিও প্রায় তখনই তার ডাকে সাড়া দিই। কিছু না কিছু লিখি চারপাশের ঘটমান চালচিত্র নিয়ে অথবা নিছক আত্মিক উচচারণমালা গাথা মাত্র। স্বভাবতঃই তাতে ঢুকে পড়ে বিচিত্র-অদ্ভূত জগতময় ঘটে যাওয়া সময়ের-কালের দৃশ্যপট। এবঙ তা যতই অদ্ভূতুড়ে হোক তার মধ্য থেকেও ঠিক টের পাই কোথায় যেন সেই সনাতন আবহমান বাংলার চিরন্তন অভিন্ন শিকড়ের গন্ধ। সেই একই একাকার এক বোধঃ আলো-অব্ধকারে যাই মাথার ভিতরে তবু এক বোধ কাজ করে। সেইতো আদতে যাপিত জীবনের ছুটন্ত সময়কে ধারণ করে লালন করে লিখিয়ে নেয় আপন্ন কথাজালময় অজস্র জলছবি। সে নাহলে হয়তো সকলই কেবল ছিন্ন পাতার ভেলা যেন।

তো, আজ যেন আবারও নতুন করে উপলব্ধির খোলা দরোজা দিয়ে ঢুকে পড়লো এক রোদেলা বাতাসের জয়োচ্ছ্বাস, যখন সদ্য সম্পন্ন নারায়নগঞ্জ নির্বাচনে বিপুল ভোটে জিতে বাংলাদেশের প্রথম নারী মেয়র হলেন ডাঃ সেলিনা হায়াত আইভি। যেন বাংলাদেশ আবার ফিরে পেলো জনরায়ের যথার্থ সন্মান যখন আইভি-র মুখে প্রতিধ্বনিত হলো বঙ্গবন্ধুকন্যা প্রধানমন্ত্রীর উক্তিঃ জনগণই সকল ক্ষমতার উতস। যখন সব ভেদাভেদ ভুলে আইভি উচচারণ করেনঃ প্রধানমন্ত্রীর দোয়া নিয়েই নির্বাচনে নেমেছিলাম, আজ আবার দোয়া নিলাম এলাকার মানুষের কাজ করার জন্য, মানব কল্যাণে কাজ করার জন্য প্রধানমন্ত্রী আমাকে নির্দেশ দিয়েছেন, এখন আমি সবাইকে নিয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করবো। শুনে হৃদয় ভরে ওঠে। আর যখন প্রধানমন্ত্রীর মুখে শুনি মাতৃস্নেহ ঝরানো ভাষা ‘বাপের বেটি ‘ তখনও অভিন্ন এক যোগসূত্রে বাঁধা পড়ে যাই। এইতো হওয়া উচিত। অথচ তা হয়না অপরাজনৈতিক অপকৌশলজাল বিস্তারি দলবাজ সর্বস্ব সহিংস আক্রমণাত্মক গোষ্ঠীর জন্য। প্রায়শঃ তাদের নৃশংস যজ্ঞের শিকার হয় কেউ না কেউ। আজ যেমন হলো আইভি-র জয়ের প্রায় সঙ্গে-সঙ্গেই নরসিংদীর মেয়র। এমন প্রতিহিংসার রাজনীতি কবে বন্ধ হবে জানিনা। তবু আশায় বুক বাঁধি আমরা যারা আমাদের দেশজ বোধ আত্মিক তাড়নায় লালন করি আর চারপাশের ব্যাধের দাপট দেখে মনে-মনে সততঃ বলি ‘ রে ব্যাধ তোর বিস্তার হবেনা দেখিস ‘ ।

সর্বোপরি সদ্য সম্পন্ন নারায়গঞ্জ নির্বাচন-এর উজ্জ্বল মডেল আইভি যেন জনমনোজয়ী বিজয় ধরে রেখে জনস্বার্থে কাজ করতে কোনও অশুভ শক্তি কর্তৃক বাধাগ্রস্ত না হয় এ আমার আজকের একান্ত প্রার্থনা। তাইতো কবিগুরুর ঢঙে বলছি
” তোরা যে যা বলিস ভাই আমার কিন্তু নেত্রীর দোয়া এবঙ মেয়র আইভি দুজনকেই চাই ” ।