ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

 

‎”এই পৃথিবী অবাক বিস্ময়ে তাকিয়ে রয় ——কি সর্বনাশা বাঙ্গালি , চারিদিকে লাথি-গুতা খেয়ে জান বেরিয়ে যায়, তবু প্রতিবাদ করার সাহস নাই ” হ্যা – বিখ্যাত সেই লাইনটি এ ভাবে পড়লেই বুঝি আমাদেরকে সঠিক ভাবে সংজ্ঞায়িত করা হবে। মিনার মাহমুদকে আমি চিনতাম সেই স্বৈরাচারের আমল থেকেই যখন আমি একজন বিচিন্তার “পোকা” ছিলাম । কি অসীম ধৈর্য নিয়ে অপেক্ষা করতাম পরবর্তী সংখ্যাটা হাতে পাবার জন্য, আর পাওয়া মাত্রই এক নিশ্বাসে পড়ে শেষ করতাম । অবাক লাগে এরকম একজন মেধাবী সাংবাদিক এর এই অসময়ে এমন নিষ্ঠুর প্রস্থান ।

দেশে আজ কত পত্রিকা- কত মিডিয়া যেখানে ” মিনার মাহমুদ ” এর মত সাংবাদিক এর কোন চাকরি হয়না, আর শফিক রেহমান এর মত নির্লজ্জ ভণ্ড সাংবাদিক ” দেশনেত্রী” বা ” আমি মেজর বলছি ” নামক ” চটি গল্প” লিখে পাচতার হোটেলে মোড়ক উন্মোচন করে অথবা মোসাদ্দেক হোসেন ফালতুর মত লম্পটরা দু’চারটি পত্রিকা – টিভি চ্যানেলের মালিক বনে যান অথবা মাহমুদূর রহমান এর মত দুর্নীতিগ্রস্ত আমলা যিনি সারা জীবন দু’কলম শুদ্ধ বাংলা লিখেছেন কিনা সন্দেহ রাতারাতি ” ভুঁইফোড় সম্পাদক” হয়ে আপাদমস্তক ” ব্রাহ্মণ” বনে যান । ” হে বঙ্গজননী, সাত কোটি সন্তানকে বাঙ্গালি করে রেখেছ – বিপ্লবী করনি , তাইত আজ দেশের এই অবস্থা । মিনার মাহমুদ লও সালাম । এই জাতি তোমাকে এ জীবনে প্রাপ্য সম্মান দেয় নাই, আশাকরি পরজন্মে তুমি তা নিশ্চয় পাবে । আর মহান সৃষ্টিকর্তা ” আপনাকে ক্ষমা করুন ” এই আমার প্রার্থনা ।