ক্যাটেগরিঃ প্রযুক্তি কথা

গত ২৯ সেপ্টেম্বর কক্সবাজারের রামুতে যে নারকীয় ঘটনা ঘটে গেল গণমাধ্যমে প্রকাশিত সংবাদ মতে তার সূত্রপাত নাকি উত্তম কুমার নামে এক বৌদ্ধ যুবকের ফেসবুক অ্যাকাউন্টে একটি ধর্মীয় বিকৃত ছবি ট্যাগ করা নিয়ে। ঘটনা যদি তাই হয়, তবে তা যারা ফেসবুক ব্যবহার করেন তাদের সকলের জন্যই চরম আতঙ্কের কথা। কারণ কেউ যদি আমাকে এ ধরণের বিকৃত কোন ছবি ট্যাগ করে বসে তবে তার পুরো দায় আমার কাঁধে এসে পড়বে আমাকে গ্রেফতার করে ট্যাগিত হওয়ার দায়ে বিচারের সম্মুখীন হতে হবে।

কিন্তু যে মহাশয়(!) ট্যাগটি করলেন তিনি কোথায়? তাকে না চিনে আমরা উত্তমকে চিনলাম কেন? কে আমাদের উত্তমকে চিনালো? তাকে শনাক্ত করা কি ভীষণ কঠিন? উত্তরগুলো কার কাছে পাবো? হামলাকারীরা কী বলবেন ট্যাগ করার দায় ট্যাগকারীর অপর নাপড়ে যাকে (হয়তো উদ্দেশ্যমূলক) তার উপর কেন পড়লো? আমাকে কে কী ট্যাগ করবে তার দায় কেন আমাকে নিতে হবে। অবশ্য এখানে বোধকরি ফেসবুকের ও কিছু দায় আছে, কারণ তারা যাকে ছবি ট্যাগ করা হয় তার নামটি আগে দেখায়, কিন্তু তাতো সব ব্যবহারকারীই জানে। তবে?

সত্যিই আমি ভীষণ আতঙ্কিত বোধ করছি। যে মানুষগুলো কেবলমাত্র ছবি ট্যাগ করার কারণে ( যদি ঘটনা সত্যি হ্যে থাকে?) একটি ধর্মীয় জাতি গোষ্ঠীর উপর এরকম নারকীয় হামলা চালাতে পারে তারা নিশ্চয় সম অপরাধে আমাকে ও আমার জাতি গোষ্ঠীকে নিশ্চিহ্ন করে ফেলতে পিছপা হবেনা।

জগতের সকল প্রাণী সুখী হোক!!