ক্যাটেগরিঃ আন্তর্জাতিক

১৮৪৩ সালের ১ অক্টোবর নিউজ অফ দ্য ওয়ার্ল্ডের ইতিহাসের শুরু | প্রকাশক জন ব্রাউনের লক্ষ্য ছিল শুরু থেকেই কাটতি বাড়ানো | যৌনতা আর অপরাধের খবর উপজীব্য করে বের হওয়া পত্রিকাটি দ্রুতই সাড়া ফেলে | ১৮৮০ সাল নাগাদ এর প্রচার সংখ্যা ৩০ হাজার ছাড়িয়ে যায় | ৪০ বছরে এটি ছাড়িয়ে যায় ১০ লাখের কোটা | যুক্তরাজ্যের প্রভাবশালী দৈনিক গার্ডিয়ানের দেয়া তথ্যে দেখা যায়, ১৯৫০-এর দশকে নিউজ অফ দ্য ওয়ার্ল্ড সবচেয়ে বেশি বিক্রী হতো | তখন এর প্রচার সংখ্যা ছিল ৮০ লাখ | রমরমা অবস্থাতেই ১৯৬৯ সালে পত্রিকাটি কিনে নেন রুপার্ট মারডক |


ছবি: প্রথম প্রকাশিত সংখ্যা

১০ জুলাই রোববার শেষবারের মতো প্রকাশিত হলো ব্রিটেনের সর্বাধিক বিক্রীত ট্যাবলয়েড নিউজ অব দ্য ওয়ার্ল্ড | প্রতি রোববার বের হতো পত্রিকাটি | এতদিন চমকপ্রদ খবরই ছিল পত্রিকাটির সম্বল | ১০ জুলাই প্রকাশিত শেষ সংখ্যায় লাখো পাঠকের কাছ থেকে বিদায় নিল ১৬৮ বছরের পুরনো ব্রিটিশ ট্যাবলয়েড নিউজ অফ দ্য ওয়ার্ল্ড | রাজ পরিবারের সদস্যসহ গুরুত্বপূর্ণ ব্যক্তিদের টেলিফোনে আড়িপাতার অভিযোগ মাথায় নিয়ে এ পত্রিকাটি বন্ধ হয়ে গেল | যুক্তরাজ্যের সবচেয়ে বেশি বিক্রীত রোববারের এ ট্যাবলয়েড পত্রিকাটির শেষ সংখ্যাটি সাজানো হয়েছিল বিভিন্ন সময়ে প্রকাশিত সংখ্যার প্রচ্ছদ দিয়ে |

ছবি: প্রকাশিত বিদায়ী সংখ্যা

এতে সাধারণ মানুষের মতো রাজনীতিক এবং সাংবাদিকদের মধ্যেও দেখা দিয়েছে ব্যাপক প্রতিক্রিয়া | প্রতি রোববার ব্রিটিশদের দিন শুরুর অন্যতম অনুষঙ্গ ছিল নিউজ অফ দ্য ওয়ার্ল্ড | ফোন হ্যাকিংয়ের অভিযোগ মাথায় নিয়ে ট্যাবলয়েডটি বন্ধ হয়ে যাওয়ায় ছুটির দিনটি পানসে হয়ে যাবে বলে অভিমত অনেক ব্রিটিশের |

***
সূত্র: বিবিসি অনলাইন ও দৈনিক সংবাদ