ক্যাটেগরিঃ নাগরিক সমস্যা

 

অনেক দিন ধরেই ভাবছিলাম ব্লগে লিখব,কিন্তু সেটা ঐ ভাবা পর্যন্তই সীমাবদ্ধ ছিল।অনেকেই এখন লিখছেন,ভালই লিখছেন তারা।তাদের সবাইকে শুভেচ্ছা জানাচ্ছি। আমিও আজ তাদের সাথে যুক্ত হলাম,আসলে আজ দুপুরে বাসায় ওয়াসার বকেয়ার প্রত্যয়ন পত্র পেয়ে কিছুটা ক্ষোভ জমা হয়েছে মনে,তাই লিখতে বসলাম।

প্রত্যয়ন পত্রে এভাবে লেখা রয়েছে… আপনাকে জানানো যাচ্ছে যে,অত্র অফিস রেকর্ড অনুসারে উপরে উল্লেখিত হোল্ডিংয়ের গ্রাহক হিসেবের বিপরিতে 31/12/2011 ইং তারিখ পর্যন্ত পানি/পয়ঃঅভিকর,মিটারের মূল্য,সংযোগ ফি ও জরিমানা খাতে নিম্নে বর্ণিত বকেয়া পাওনা রয়েছে।

আমার বাসার হোল্ডিং নাম্বার অনুসারে ৩১/১২/০৯ হতে ৩১/১২/১০ এই এক বছরের বকেয়া ধরা হয়েছে যেখানে আমার বাসার কোন বকেয়া নেই।যদিও প্রত্যয়ন পত্রে লেখা আছে যে উল্লেখিত বকেয়ার উপর গ্রাহকের কোন আপত্তি থাকলে পত্র প্রাপ্তির ২১ দিনের মধ্যে নির্দিষ্ট দপ্তরে লিখিতভাবে জানাতে হবে।এটা শুধু আমার নয়,এলাকার সব বাড়িতেই এই পত্র আরও আগে হতে দেয়া শুরু হয়েছে।ক্ষোভের বিষয় হল, যাদের বকেয়া আছে তাদেরকে এটা দেয়া হবে,গণহারে সবাইকে কেন পাঠান হচ্ছে?যদি বকেয়ার প্রত্যয়ন পত্র পাঠাতে পারে দপ্তর,তাহলে বছর শেষে বিল পরিশোধের প্রত্যয়ন পত্র কেন পাইনা।অনেকে বলতে পারেন এটা সংগ্রহ করা বাড়ির মালিকদের দায়িত্ব,মানছি..তারপরেও আমি বলব যাদের বিল পরিশোধ করা আছে,এভাবে তাদের অন্তর্ভুক্ত করে সবাইকে একই কাগজ ধরিয়ে দেয়া উচিৎ নয় এবং পাঠানোর আগে তারা কেন চেক করে নেন না যে কাদের বকেয়া আছে,কাদের নেই!!এথানে উল্লেখ্য,ডেসকো থেকে প্রতিবছর শেষে বকেয়া না খাকলে তার প্রত্যয়ন পত্র পরবর্তী বিলের সাথে দিয়ে যায়।

আমি উপরে লিখেছি কিছুটা ক্ষোভ!!কারণ আমার বা আমাদের এগুলো নিয়ে এখনও আশ্চর্য হওয়ার কথা নয়..তারপরও হই..এটা্‌ই আশ্চর্যের বিষয়!!!