ক্যাটেগরিঃ দিনলিপি

ইদানিং অতীব দুঃখের সহিত লক্ষ্য করা যাইতেছে যে, কেহ কেহ আড়ালে-আবডালে, আকার-ইঙ্গিতে , চামে-চামে, আমাকে পাগল বলিয়া চালানোর চেষ্টা করা হইতেছে । আমি কিভাবে ভাল-ভাল কথা বলিতে পারি, তাহা লইয়াও যথেষ্ট সন্দেহ পোষণ করা হইতেছে । বাহিরের পুরাটাই গারদ এবং তাহাদের উপযুক্ত স্থান ভাবিয়া , এক শ্রদ্ধেয় বড় ভাই সমেত পাবনায় প্রকৃত ভাল মানুষ গুলির সহিত আশ্রয় লইয়াছিলাম। ইহার পরও আমাকে অপবাদ সহ্য করিতে হইতেছে । আমি দ্ব্যর্থহীন ভাষায় বলিতে চাই , নিজেরা পাগল বলিয়া অন্যকে পাগল ঠাওরাইবেন না । কিছুই হইবেনা, ইহা জানিবার পরও যাঁহারা আশায় আশায় বুক বাঁধিয়া লিখিয়া চলিয়াছেন , তাহারাই প্রকৃত পাগল । পড়িয়া কোনই লাভ হইবেনা জানিয়াও যাঁহারা পড়িয়া চলিয়াছেন তাঁহারা অবশ্যই পাগল । মন্তব্য লিখিয়া যাঁহারা মনে করিতেছেন , দেশ উদ্ধার করিয়া বুদ্ধিজীবীর খাতায় নাম লিখাইলাম তাঁহারা পাগলেরও পাগল । এই পোড়া কপালীর দেশ ত্যাগ করিয়া বিদেশের স্বপ্নময় জীবন গ্রহন করিয়া যাঁহারা দেশের জন্য কান্দিয়া বুক ভাসাইতেছেন ,হৃদয়ে-অন্তরে পুরা বাংলাদেশ প্রবেশ করাইয়া রাখিয়াছেন, তাঁহারা পাগলের বড় ভাই পাগল । বিদেশে কষ্ট করিয়া কামাই করা অর্থ তিলে তিলে জমাইয়া যাঁহারা দেশে আসার জন্য প্লেনের টিকিট বুকিং দেন , স্বামী-সংসার ফেলাইয়া জনগণের কল্যাণে পৃষ্ঠার পর পৃষ্ঠা লেখিয়া চলিয়াছেন, তাঁহারা পাগলের বইন পাগল । অভাগা দেশের স্বপ্ন পূরণের জন্য, দেশে আসিয়া লাঞ্ছিত হইয়া পুনরায় বিদেশে ফিরিয়া যান , তাহাঁরাও জাত পাগল । যাঁহারা একতরফা ভালবাসায় (উহা আর ফিরিয়া আইসে না) বুঁদ হইয়া , ভালবাসার পাত্রপাত্রীর কোন দোষ-ত্রুটি খুঁজিয়া পাইতেছেন না , তাঁহারা আম পাগল । যাঁহারা প্রতি পাঁচ বছর পরপর ভালবাসার পাত্রপাত্রী বদলাইয়া ফেলিতেছেন তাঁহারা জনতা পাগল । বিপ্লবি চেতনার ঝাণ্ডা উড়াইয়া , কিবোর্ডের পর কিবোর্ড নষ্ট করিয়া যাঁহারা এখনো বিবাহের সময় পর্যন্ত পান নাই , তাহাঁরাও বৈরাগী পাগল । তোমরা পাগল, সবাই পাগল, এই পাগলেরই রাজত্বে ……… কাজেই, আমি পাগল, ইহা কখনই সন্দেহ করিবেন না । নিজের চরকার সূতা ফুরাইয়া যাইতেছে, উহা খরিদ করিবার ব্যাবস্থা গ্রহন করার জন্য অনুরোধ জানান যাইতেছে ।
থুক্কু ঃ যাঁহারা অকার্যকর নাসিকা রন্ধ্রের কারনে কাঁঠালের গন্ধ বুঝিতে না পারিয়া, কাঁঠালের বস্তাকে মনি-কাঞ্চনের বস্তা ভাবিয়া থাকেন, তাঁহারা হাইব্রিড পাগল ।