ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

 

মা দুর্গা, তুমি কেমন আছো মা? খুব কষ্টে আছো বুঝি? আর কষ্ট হবেই বা না কেন? আজকাল ডিস লাইন বা ইন্টারনেট ছাড়া কি থাকা যায়? তার মধ্যে আবার বিদ্যুতের লাইন কাটা। এভাবে তো ভালো থাকা যায় না জানি। তবু জিজ্ঞাস করে নিজেকে বুঝি পাপে জর্জরিত করলাম। কি আর বলবো মা, ওরা না ইদানীং খুব পাজি হয়ে গেছে। ওরা একজনের নিকট থেকে গনতন্ত্র কাইরা নিয়া আরেকজনকে দেয়।

 

মা দুর্গা, আমি তোমাকে জিজ্ঞেস করছি, তুমি কেমন আছো? এযে বড় অন্যায় করে ফেললাম মনে হয়, কারণ তুমিই তো আমাদের ভাল-মন্দ দেখাশুনা কর। আর এই আমিই তোমাকে জিজ্ঞেস করছি তুমি কেমন আছো? থুক্কু মা দুর্গা থুক্কু, আমাদের মাফ করে দাও। আমাদের অধিকার ফিরিয়ে আনার জন্য তুমি কত কিছুই না করে যাচ্ছ। তোমার ইশারায় আমরা হরতাল অবরোধ পালন করছি। কতজনে বাস-ট্রাক ভাংচুর করছে। কেউবা তাজা মানুষ পুড়া দিচ্ছে। এসব তো হচ্ছে আমাদের অধিকার আদায়ের জন্যই।

 

মা দুর্গা, ওরা না! আজকাল বড্ড  চালাক হয়ে গেছে। ছেলেমেয়েদের পরীক্ষার ছুতো দিয়ে জনগনের দাবীকে উপেক্ষা করতে চায়। তাই কি হয়? তুমিই বল মা তা কি করে হয়? কিসের পরীক্ষা কিসের কি? আগে তো আমাদের অধিকার তার মানে শান্তি প্রতিষ্ঠা। পরীক্ষা কি আর পরে নেওয়া যায় না? অনেকে বলাবলি করছে আগেও নাকি এমন হয়েছে, পরীক্ষা পিছিয়ে দেওয়া হয়েছে। তাহলে এখন পিছিয়ে দিতে সমস্যা কোথায়?

 

মা দুর্গা, ওরা না ইদানীং খুব চাতুর্যপূর্ণ কথা বলে। ওরা বলে দেশে নাকি শিক্ষা ক্ষেত্রে অভূতপূর্ব সাফল্য অর্জন করেছে! আবার কেউ বলে সব নাকি মাকাল ফল বানাচ্ছে! আমরা কোন দিকে যাবো বল? কিন্তু এটা তো অস্বীকার করার কিছু নেই যে, প্রশ্নপত্র আউট হয়ে যাচ্ছে। যত যাই হোক এসব শিক্ষায় লাভ কি বল? মানুষ নাকি যত শিক্ষিত হচ্ছে তত নাকি তোমার প্রতি বিশ্বাস উঠে যাচ্ছে। আর বিশ্বাস উঠে যাওয়া মানে তো নাস্তিকতা।

 

মা দুর্গা, আস্তিকতা আর নাস্তিকতা নিয়ে আমার মনে খুব কষ্ট লাগে। আমিতো বিধাতার দেয়া বিধান পালন করছি, হয়তো ১০০% করতে পারিনা, কিন্তু আমিতো চাঁদের মধ্যে কোন মানুষ দেখতে পাই না। কারণ এটা আমার মোটেই বিশ্বাস হয় না। তাহলে কি এটা আমার লেখাপড়ার কোন দোষ? এই অবিশ্বাসের কারণে কি আমি নাস্তিক হয়ে যাবো?

 

মা দুর্গা, তোমাকে আমি মা দুর্গা বলে ডাকলাম। আমার ডাক শুনে তুমি খুশি হবে না বেজার হবে জানি না। তবে তুমি যদি বেজার হও তাহলে আমি দায়ী না (বরং একজন মুসলিম হিসেবে আমি আন্তরিকভাবে ক্ষমাপ্রার্থী) কারণ তোমাকে মা দুর্গার আসনে বসিয়েছেন তোমারি যোগ্য অনুসারি জনাব গয়েশ্বর চন্দ্র। তুমিই তাঁকে জিজ্ঞেস করতে পারো তোমাকে মা দুর্গার আসনে বসানো ঠিক হয়েছে কিনা?

 

মোহাম্মদ সহিদুল ইসলাম

Sahidul77gmail.com