ক্যাটেগরিঃ ক্যাম্পাস

 

‘ব্রাউজ ফর বেটার ফিউচার’ এই স্লোগান নিয়ে বাংলাদেশের প্রথম ও সর্ববৃহৎ শিক্ষা বিষয়ক ওয়েব পোর্টাল ভার্সিটি এডমিশন ডট কম যাত্রা শুরু করেছিল ২০০৩ সালে। অনেক সাফল্য-ব্যর্থতা নিয়ে এই বছর এটি অষ্টম বর্ষে পদার্পণ করেছে। গত আট বছর ধরে সময়োপযোগী ও সঠিক তথ্য দিয়ে সারাদেশের অসংখ্য ছাত্র-ছাত্রীর আস্থা অর্জন করেছে। মূলত উচ্চ শিক্ষা প্রত্যাশী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য পোর্টালটি তৈরি হলেও এখন পর্যন্ত অনেক বিশ্ববিদ্যালয়ও এর সেবা গ্রহণ করছে। এটি এখন হয়ে উঠেছে উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ও বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি প্রত্যাশীদের মিলন মেলা।

বাংলাদেশের সব সরকারি ও বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়সহ মেডিক্যাল ও ডেন্টাল কলেজসহ সকল শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ভর্তি সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য রয়েছে এখানে। ছাত্র-ছাত্রীরা তাদের পছন্দ ও যোগ্যতা অনুযায়ী বেছে নিতে পারবে তার পছন্দের প্রতিষ্ঠান। এসব শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে বিভাগগুলোকে অনুষদভিত্তিক ভাগ করা হয়েছে। এছাড়াও বিশ্ববিদ্যালয়ের মধ্যে পচ্ছন্দ অনুযায়ী তুলনা করার সুবিধা রয়েছে। ফলে একজন স্টুডেন্ট এর জন্য তার পছন্দের বিষয় বেছে নেয়া খুব সহজ।

বাংলাদেশের সব বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি এখানে পাওয়া যায়। ফলে ছাত্র-ছাত্রীদের আর টেনশন নিয়ে ভর্তি বিজ্ঞপ্তির জন্য অপেক্ষা করতে হয় না। কিংবা ভর্তি বিজ্ঞপ্তি মিস করার আশংকাও নেই। এতে তারা এক ধরনের স্বস্তি পেয়েছে। ২০১১-এ উচ্চ মাধ্যমিক পাশ করা একজন ছাত্রী সুমাইয়া শিমু জানালেন, “সব সার্কুলার সময় মতো একসঙ্গে পাওয়া যায় ও সব ধরনের ভর্তি পরিবর্তন সংক্রান্ত নোটিশ আগে পাওয়া যায় সেহেতু আমি পুরোপুরি ভার্সিটি এডমিশন ডট কমের ওপর নির্ভর করছি।”

বাংলাদেশের জন্য প্রযোজ্য বিভিন্ন দেশ, সংস্থা, মিশন ও বিশ্ববিদ্যালয়ের নিয়মিত হালনাগাদ করা হয় এই ওয়েব পোর্টালে। বাংলাদেশের বিভিন্ন সংস্থা ও জেলা পরিষদসহ সব ধরনের বৃত্তির তথ্য রয়েছে এই পোর্টালে।

কোন দেশের স্টুডেন্ট ভিসার জন্য কী করতে হবে তা পর্যায়ক্রমিকভাবে বিস্তারিত বলা আছে। এসব তথ্যের মধ্যে রয়েছে ভিসা ফি, ভিসার আবেদন পত্র, ভিসা ফি জমা দেয়ার ব্যাংক, আবেদনপত্র সংগ্রহ ও জমা দেয়ার স্থান, আবেদনপত্রের সঙ্গে জমা দিতে হবে এমন কাগজপত্রের তালিকা। এ ছাড়াও রয়েছে ভিসা ইন্টারভিউ টিপস। এর মধ্যে আছে স্টুডেন্ট ভিসার জন্য সচরাচর যেসব প্রশ্ন জিজ্ঞেস করা হয় তা উত্তরসহ দেয়া হয়েছে এই সেকশনে।

বিশ্ববিদ্যালয়গুলো তাদের ভর্তি বিজ্ঞপ্তি এই পোর্টালে সরাসরি আপলোড করতে পারে। ভর্তি বিজ্ঞপ্তি আপলোড করলে পোর্টাল কর্তৃক যাচাই বাছাই করে অনুমোদন দিলে তা মূল পোর্টালে দেখা যায়। তবে এই সুযোগ গ্রহণ করতে হলে পোর্টাল কর্তৃপরে নিকট থেকে পাসওয়ার্ড সংগ্রহ করতে হবে। বিশ্ববিদ্যালয়ের ও সমপর্যায়ের শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের জন্য এই সেবা সম্পূর্ণ বিনামূল্যে দেয়া হচ্ছে।

গত আট বছরের সাফল্য –
বর্তমানে এই ওয়েব পোর্টালের মাসিক ভিজিটর তিন লাখের বেশি। সারাদেশের ছাত্র-ছাত্রী এই পোর্টালের তথ্য নিয়ে উপকৃত হচ্ছেন। বিশ্বের এক নম্বর সার্চ ইঞ্জিন গুগলের সার্চ রেজাল্টে এটি প্রথম দশে অবস্থান করছে। সবচেয়ে বেশি ভিজিট হয় এমন দশটি বাংলাদেশী ওয়েবসাইটের মধ্যে এটি অন্যতম। শিক্ষা বিষয়ক ওয়েব পোর্টালের মধ্যে এটি বাংলাদেশে প্রথম ও সেরা। গত ২০১০ সালে ই-লারনিং বিভাগে আইসিটি মন্ত্রনালয় ঘোষিত জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি পুরষ্কার লাভ করে। জাতিসংঘ তাদের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে বলেছে ভার্সিটি এডমিশন ডট বাংলাদেশী ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য ভর্তির, স্কলারশিপ ও ভিসার নির্ভরযোগ্য

ওয়েব পোর্টালটির ঠিকানা: www.VarsityAdmission.COM