ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

 

আসন্ন ঈদুল আযহা উপলক্ষে রাজধানীতে জমে উঠেছে পশুর হাট । হাটে প্রচুর গরুর আমদানী থাকলেও দাম অত্যান্ত চড়া । বিভিন্ন হাট ঘুরে দেখা গেছে গরুর ব্যাপারীরা এক একটি মাঝারী আকৃতির গরুর দাম চাচ্ছেন সত্তুর থেকে আশি হাজার টাকা যা গতবারের গরুর তুলনায় প্রায় দ্বিগুন । কিন্তু আশ্চর্যের বিষয় হচ্ছে – বিভিন্ন টিভি চ্যানেলগুলো প্রচার করছে পুরো উল্টো সংবাদ । চ্যালেগুলোতে বলা হচ্ছে, হাটে গরুর দাম রিজনেবল । দাম প্রচারের ক্ষেত্রে যেসব ক্রেতাদের দেখানো হচ্ছে তারা মূলত হাটের ইজারাদারদের লোকজন । টিভি চ্যানেলগুলোর এই মিথ্যা প্রচারে ক্রেতারা বিভ্রান্ত হচ্ছেন ।
টিভি চ্যানেলের সংবাদ দেখে কমলাপুর হাটে গিয়ে দেখা যায় পুরো উল্টো চিত্র । অনেক ক্রেতাই গরু না কিনে ফিরে যাচ্ছেন । কেউ কেউ ছুটছেন এক হাট থেকে অন্যহাটে কোরবানীর পশুটি কেনার জন্য । অনেকে আবার শরীকে গরু কেনার চিন্তা ভাবনা করছেন। তবে আশার কথা হচ্ছে যে, হাটে গরুর আমদানী ভাল থাকায় ক্রেতারা আশা করছেন বাকি দু’দিনে গরুর দাম কমে আসবে । তবে আশার কথা হচ্ছে যে, হাটে গরুর আমদানী ভাল থাকায় ক্রেতারা আশা করছেন বাকি দু’দিনে গরুর দাম কমে আসবে ।

ছাগলের দামের ব্যাপারে বলা হচ্ছে যে, ছাগলের বাজার বেশ চড়া কিন্তু হাট ঘুরে দেখা যাচ্ছে যে, হাটে ছাগলের দামই সস্তা । টিভি চ্যানেলগুলো এই মিথ্যা প্রচার সত্যিই বিস্মিত হবার মতো । প্রশ্ন হচ্ছে কাদের স্বার্থে এই মিথ্যা প্রচার করা হচ্ছে ? অদক্ষ রিপোটার দিয়ে রিপোট তৈরি করার ফলেই এমনটা হয়েছে । রিপোট তৈরির ব্যাপারে টিভি চ্যানলগেুলোকে আরো যত্নবান হতে হবে তা না হলে টিভি চ্যানেলে প্রচারিত সংবাদে জনসাধারণ বিভ্রান্ত হতে পারে ।