ক্যাটেগরিঃ গণমাধ্যম

একাত্তরের মানবতা বিরোধী শক্তির বিরুদ্ধে পুরো জাতি জেগে উঠায় শন্কিত হয়ে পরেছে জামাত শিবিরের নেতা কর্মীরা । তারউপর রাজিব হত্যাকান্ডটি যেন আগুনে ঘী ঢালার কাজ করেছে । যদিও পুলিশ এখন পর্যন্ত খুনীদের গ্রেফতার করতে পারেনি ।তবুও এই হত্যাকান্ডের দায় ভার পুরোটা গিয়ে পরেছে জামাতের কাধে । শাহবাগ স্কয়ারে আন্দোলনে ব্লগারদের সাথে সাথে সবচাইতে বড় ভুমিকা যারা রেখেছে তারা হলেন বিভিন্ন দৈনিক ও মিডিয়ার সাংবাদিকগন । মূলত তাদের আন্তরীকতায়ই আন্দোলন এতোটা বেগবান হয়েছে । কোনঠাসা হয়ে পরেছে জামাত ।

গতকালকের ফ্লপ হরতাল আরো প্রমান করেছে যে, এ দেশে জামাতের কোন ঠাই নাই । তাই আন্ডারগ্রাউন্ডে যাবার পুরো প্রস্তুতি নিচ্ছে জামাত শিবিরের ক্যাডাররা । মাথাচারা দিয়ে উঠা জামাতের সবচাইতে যারা বেশি ক্ষতি যারা করেছে তারা হচ্ছে সাংবাদপত্র ও সাংবাদিকগন তাই স্বাভাবিক ভাবেই জামাতের সকল রাগ গিয়ে জমা হয়েছে সাংবাদিকদের উপর তাই আমি আশন্কা করছি যে, যেকোন সময় সাংবাদিকরা জামাতের চোরাগোপ্তা হামলার শিকার হতে পারেন ।বর্তমানে আন্দোলনের যে অবস্থা দাড়িয়েছে তা পর্যবেক্ষন করে বলা যায় যে, জামাতকে নিষিদ্ধ করার সঙ্গে সঙ্গে জামাত যাদের উপড় সব প্রথম হামলে পরবে তারা হচ্ছেন সাংবাদিকগন । তাই সকল সাংবাদিক ভাই, বন্ধুগনের প্রতি অনুরোধ কোন সংবাদের র্সূত্র এবং জায়গা সর্ম্পকে একেবারে নিশ্চিত না হয়ে একা কোন সংবাদ সংগ্রহ করতে কেউ যাবেন না ।