ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 
null

আপনার,আমার বৈধ ও সৎ উপায়ে উপার্জনের টাকা হতে প্রতি বছর যে কর রাষ্ট্রকে দিয়ে থাকি তা দিয়েই রাষ্ট্রের প্রধান ব্যয়ভার বহন করা হয়ে থাকে । কিন্তু সরকার এবারও যে ভাবে কালো টাকা সাদা করার সুযোগ করে দিয়েছে । তাতে নিজেকে অপমানিত মনে করছি । বাজেট ঘোষনার সময় অর্থমন্ত্রী “কালো টাকার ব্যপারে কিছু না বললেও বাজেট বক্তৃতার শেষে অর্থমন্ত্রী সংসদে যে অর্থ বিল উপস্থাপন করেছেন, তাতে কালো টাকা সাদা করার সুযোগের কথা বলা হয়েছে।”

একজন বৈধ করদাতা সারা বছরের হালাল উপার্জন থেকে সরকারকে কর দেবো । আর আঙুল ফুলে গলা গাছ হওয়া দুর্নীতিবাজরা তাদের দুর্নীতির মাধ্যমে অর্জিত কালো টাকা মাত্র ১০ শতাংশ হারে জরিমানা দিয়ে সাদা করে নিয়ে সকল জবাবদিহিতার উর্ধ্বে অবস্থান করবে তা হতে পারে না ।

কালো টাকাকে সাদা করার সুযোগ দিয়ে সরকার অবৈধ উপার্জনকারী ও কর ফাঁকি দেওয়াদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির বদলে পুরস্কৃত করছে আর বৈধ করদাতাদের শাস্তি সুরুপ এ বছর করের হার বাড়িয়ে দিয়েছে । আসুন সবাই মিলে কর ফাঁকি দেই এবং পুরস্কৃত হই ।