ক্যাটেগরিঃ চারপাশে

কি আশ্চর্য! জীবন ধারনের মত খাদ্য দ্রব্যে ব্যাঙ থাকার ঘটনা স্তম্ভিত করেছে মানুষকে। গত ১৪ জুন ধামইরহাটের জগদল আদিবাসী স্কুল ও কলেজের সহকারী অধ্যাপক মোবাইদুল ইসলাম ধামইরহাট কাঁচাবাজারের মুদি ব্যবসায়ী মোঃ জাহাঙ্গীর আলম বাবুর দোকান থেকে ৫০০ গ্রাম ওজনের ২ প্যাকেট মুড়ি ক্রয় করেন। মুড়ির প্যাকেটের গায়ে ডলফিন মার্কা, শোভা মুড়ি, বিসিক শিল্পনগরী, নওগাঁ লেখা আছে। প্যাকেট ছিঁড়ে মুড়ি খাওয়ার সময় দূর্গন্ধ পেয়ে সন্দেহ হলে, প্যাকেট ঘেঁটে একটি ব্যাঙ পান। সহকারী অধ্যাপক এবং সাধারন ভোক্তাদের প্রশ্ন মুড়ির কারখানার মালিক নিজের স্বার্থে এতটাই উদাসীন? ভোক্তাদের নিকট থেকে টাকা নিচ্ছেন মুড়ির ভেতর ব্যাঙ দিয়ে?