ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

কেউ চাক বা না চাক দেশ কিন্তু চালাবে রাজনীতিবিদ রাই । সব রাজনীতিবাজকেই বাদ দেয় যাবে না বা সবাইকে একসাথে জেলেও পুরা যাবে না (জেনারেল মইনুদ্দিন এই পথে এগিয়েছিল কিছু দূর) , জেল থেকে বেরিয়ে আবার দ্বিগুণ বেগে ‘সেই কাজ’ করবে যার জন্য জেল এ গিয়েছিল । জেলখানা , শিক্ষাঙ্গন , পরিবার সব জায়গাতে নৈতিকতার এত অবক্ষয় হয়ে গেছে যে কি করছি , কেন করছি , কার জন্য করছি এই চিন্তা গুলো ও অনেক ক্ষেত্রেই ভাবনার মধ্যে আসে না । কেবল ই খাই খাই ভাব , হজম করতে না পারলেও খাওয়া চাই । দরকার নাই তবুও আমার চাই ।

সব কাজ সবার জন্য নয় , তেমনি রাজনীতি ও সবার জন্য নয় , কিন্তু অনেক অরাজনৈতিক ব্যক্তি রাজনীতি তে ঢুকে রাজনীতি কে কলুষিত করে ফেলেছেন । অরাজনৈতিক ব্যক্তিদের কে রাজনীতিতে ঢোকার ব্যবস্থা রাজনীতিবিদ রা ই করে দিয়েছেন । রাজনীতি কে উপরে উঠার সিঁড়ি হিসেবে নেয়া হচ্ছে । সফলতাও আসছে, তাই আরো হাজার হাজার মানুষ এই সিঁড়ির দিকে প্রতিনিয়ত ধাবিত হচ্ছে। প্রকৃত রাজনীতিবিদদের সংখ্যা (রেশিও) কমতে শুরু করেছে আস্তে আস্তে। যেদিন এই সংখ্যা ‘শূন্য’ (০) হবে সেদিনের অবস্থা কল্পনায় আনতে পারছি না।

রাজনীতিবিদদের কেই এখন সিদ্ধান্ত নিতে হবে উঁনারা কি সঠিক রাজনীতি করবেন না রাজনীতি থেকে নির্বাসিত হবেন । যদি এই সঠিক পথে না আসেন তবে হয়তো জনগন ই একদিন সঠিক পথে আনতে আপনাদের কে বাধ্য করতে বাধ্য হবে । কাজ করতে গেলে ভুল হতেই পারে । ভুল এর অনুপাত কি ৫% , ১০% ,১৫% বা ২০% , এর বেশি ভুল মেনে নেয়া যায় না । ভুল আর দুর্নীতি তো এক নয় । প্রত্যেকে নিজের জায়গাতে যদি শুদ্ধ থাকি এবং শুদ্ধ থাকার চিন্তা করি তবে একদিন আমাদের এই দেশ সত্যিকার সোনার বাংলা অবশ্যই হবে , আমি দেখে যেতে না পারলেও ।

পদ্মা সেতু আমাদের দরকার, এতদিন করলাম না কেন? না আগে দরকার ছিল না । পদ্মা সেতু, চাই বিশ্ব ব্যাংক এর ঋণের টাকায় হোক, চাই জনগনের টাকায় হোক , চাই আসমান থেকে নিক্ষেপিত টাকায় হোক , কালো টাকায় হোক ,চাই সাদা টাকায় হোক, বাংলাদেশিরা করুক বা বিদেশীরা করুক , আওয়ামী লীগ দ্বারা হোক বা বি এন পি দ্বারা হোক , ২০১২ তে হোক বা ২০২১ এ হোক , দুর্নীতি হবেই , ঠেকানোর কোন রাস্তা নেই , তারপর ও সেতু টি হোক এই কামনা । যতই হাউ কাউ করি না কেন , বাস্তব বাস্তব ই । মেনে নিতেই হবে। যত বড় রাজনৈতিক সমাবেশ তত বেশী ট্যাক্স পদ্মা সেতুর জন্য ধার্য করা হোক , তারপর দেখবো রাজনীতিবাজ রা কে কত বড় সমাবেশ করতে পারে ? যারা জাতীয় ইস্যু তে কখনই এক হতে পারে না কিন্তু নেম ফ্ল্যাট বরাদ্দ পেতে এক হয়ে যায় সেই রাজনীতিবাজদের যে লজ্জা শরম নেই তা কি আর বুঝতে বাকি আছে ? এই পদ্মা সেতু নিয়ে রাজনীতিবাজরা আরও যে কত খেলা খেলবে এবং এই সব খেলা ই শুধু মাত্র –একমাত্র দুর্নীতির ভাগ ‘আমি না আবার না পাই’ এই মানসিকতা থেকে ।

এই সরকার তো শেষ করতে পারবে না পদ্মা সেতু। এখন ১০ টাকা দুর্নীতি হলে, আগামীতে সরকার বদল হলে যে ১২ টাকা দুর্নীতি হবে না এই নিশ্চয়তা কে দিবে ?