ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ

 

সভ্যতার সাথে সাথে পৃথিবীটা বদলে গেছে। আগের দিনে মানুষ সূর্য দেখে সময় নি্র্ধারণ করতো। তারা মানুষকে ভালবাসত। একে অন্যের বিপদে ছুটে যেত। সেই কবে মানুষ চাঁদে গেছে। মানুষ উড়োজাহাজ আবিস্কার করে হাজার মাইল পথকে সময়ের মাপকাঠিতে বেঁধে ফেলেছে। নিজের মেধা খাটিয়ে প্রাণঘাতি রোগের ঔষধ আবিস্কার করে চমক সৃষ্টি করেছে। তরঙ্গের সাহায্যে হাজার মাইল দুরের ছবি, কথা চোখের সামনে উজ্জল হয়ে ভেসে উঠছে মিনিটেই। সাথে সাথে মানুষ নিজের মেধা, শ্রম,অধ্যাবসায় দিয়ে দেশ জাতীকে সমৃদ্ধশালী করেছে। পৃথিবীতে বহু উদাহরণ রয়েছে। বহু দেশ আজ উন্নয়নের শী্র্ষে অবস্থান করছে। বিশ্বের মানচিত্রে এমনই একটি দেশ রয়েছে যার নাম বাংলাদেশ। সেই ১৯৭১ সালের ১৬ই ডিসেম্বর যার জন্ম। দেখতে দেখতে ৪১ বছর পেরিয়ে যাচ্ছে যার বয়স। সে এখন টগবগে তাজা তরুণ। কিন্তু সমস্যা হলো তাকে সঠিক পথ দেখানো মানুষের। যে মানুষটিকে নিয়ে আমরা স্বপ্ন দেখতাম স্বপ্নের সোনার বাংলা তার করুণ বিদায়ে আমরা পথ হারিয়ে ফেলেছি। মানুষ আর এখন মানুষ নেই। কে কাকে ঠকাবো, কার টাকা চুরি করে নিজে বড় হবো, কার জমি জাল করে নেব, হাইজ্যাক করবো, খুন, ধর্ষণ, রাহাজানি, মামলা, বলবো কোনটা। সরকারী জমি, খাল-বিল, নদী-নালা, পাহাড়-পর্বত কোনটারও রেহাই নেই খারাপ মানুষদের হাত থেকে। মানুষের মনুষত্য আজ পদদলিত। এমন কোন জায়গা পাওয়া যাবেনা সেখানে খারাপ লোক নেই। ভাল মানুষ যে একেবারেই নেই তা বলব না। তবে হাতে গুনা কয়েকজন। দেশের প্রতিটি সচেতন নাগরিকের কাছে আমার ক্ষুদ্র অনুরোধ আসুন আমরা যে যার অবস্থান থেকে বদলে যাওয়ার অঙ্গিকার করি। হয়ত আমার আপনার কোন খারাপ অভ্যাস আছে, চেষ্টা করি বদলে যাওয়ার। আপনি আজই শুরু করুন, অন্যেরা আপনাকে অনুসরণ করবে। পৃথিবীটা খুব অল্প দিনের। নিজের বিবেককে প্রশ্ন করুন, আপনি খারাপ না ভাল। এতে দেশের উপকার হবে। জাতী হিসাবে আমরা অনেক দুরে এগিয়ে যাব। আপনি আমি নাইবা দেখলাম, আমাদের ভবিষ্যত প্রজন্ম একটা সুন্দর দেশের নাগরিক হবে এটাতো বিরাট আনন্দের।