ক্যাটেগরিঃ নাগরিক সমস্যা

রাজধানীর বানিজ্যিক এলাকা মতিঝিলের শাপলা চত্তর হইতে মুগদা পাড়ার দুরত্ত আনুমানিক এক থেকে দেড় কিলোমিটারের বেশি হবে না । নাভানা কোম্পানীর পুরাতন লক্কর-ঝক্কর মেক্সি ছাড়া সাধারন মানুষের যাতায়াতের অন্যকোন পরিবহন নেই। বানিজ্যিক এলাকা মতিঝিল খুব কাছাকাছি থাকায় নিম্ন ও মধ্যবিত্ত শ্রেণী এখানে বসবাস করে । বিশ্বরোড থেকে মান্ডা পর্যন্ত রাস্তার অবস্তা খুবই খারাপ । অত্যন্ত ঘণবসতি এলাকা অথচ পাবলিক পরিবহন বলতে ভাঙ্গাচোরা কয়েকটি ম্যাক্সিই একমাত্র ভরসা ভাড়া ১০ (দশ) টাকা কিছু পূর্বে ও ভাড়া ছিল ৬ (ছয়) টাকা। সরকার দুই দফা সিএসজির বাড়ানোয় ম্যক্সি মালিকরা নোটিস টাঙ্গিয়ে দুই টাকা করে দুই দফায় চার টাকা বাড়িয়ে ৬ টাকার স্থলে ১০ টাকা করেছে।

পরিতাপের বিষয় হইলো শুধুমাত্র ভাড়াই বাড়ানো হলো কিন্তু সেবার মান আগের চাইতে আরও খারাপ হয়েছে । বেশির ভাগ ম্যাক্সিতে বসার সিটের অবস্থা খুবই খারাপ তদুপরি ১০ জনের বসার জায়গায় অত্যন্ত গাদাগাদি করে ১৫ জন বসতে হয়। গাড়ি যেখানে ষেখানে বিকল হয়ে যায়। চালকদের অবস্থা আরও করুন অল্প বয়সি , বখাটে ,নেষাখোর, যাদের কোন ড্রাইভিং লাইসেন্স নেই । দানবের মতো গাড়ি চালায় ইতিপূর্বে তাদের হাতে কয়েকজনের প্রাণও গেছে , সেখানে খুশি সেখানে গাড়ি ঢুকিয়ে দেয় , যেখানে খুশি সেখানেই গাড়ি থামিয়ে দেয় আর সকাল ১১ টা পর্যন্ত বিশ্বরোড সংলগ্ণ পাম্পের কাছথেকে যাত্রী বোঝাই করে চলে যায়, বাসার টাওয়ার পর্যন্ত আসেনা তবে যেখান থেকেই যাক না কেন ভাড়া কিন্তু ১০ টাকাই ,উঠলে উঠেন না উঠলে ভাগেন , ভাড়া কম চলবো না । এত কিছুর পরও কিছু মানূষ চলছে আর অধিকাংশের ভাগ্যে ঐ ম্যাক্সি ও জোটে না আর রিক্সা তো সোনার হরিন যদি ও বা মতিঝিল পর্যন্ত পেয়েই যান, তবে ভাড়া কিন্তু ৪০ টাকা কম নাই । মুদ্দা কথা মুগদা পাড়াবাসির দুঃখের কোন শেষ নাই। জবান শুধু একটাই ” দেখার কি কেউ নাই !” ।।