ক্যাটেগরিঃ নাগরিক আলাপ, ফিচার পোস্ট আর্কাইভ

শুরু হোল আবার ও শুভ হরতাল! না না শুভ বলছি এই কারনে, বি এন পি আর আওয়ামীলীগ যা কিছু করে সব ই তো জাতীর কল্যাণে। আজ হরতাল। সকাল থেকেই বেশ নিজেকে অসহায় মনে হচ্ছে। অরক্ষিত মনে হচ্ছে। চোখের সামনে দেখলাম একটি গাড়ী পুড়িয়ে দিচ্ছে পিকেটাররা।রিক্সা ভাংছে, মার্কেট এর সামনের চক চকে রঙ্গিন গ্লাস গুলী ঝম ঝম করে ভাংছে।কিছু ক্ষণ আগে একদল এসে পাড়ায় শাসিয়ে গেল, দোকান খুলবি না।পুড়িয়ে দেব। তাকিয়ে তাকিয়ে দেখলাম হায়রে আমার দেশ! আর কত রসাতলে যাবিরে তুই?

আমির ভাই সকালে অফিস জাবার জন্য একটু আগেই বাসা থেকে বের হয়েসে। কিছু ক্ষণ আগে তার সাথে কথা হোল, বল্ল সকাল ৭ টায় রামপুরার বাসা থেকে বের হয়ে দাড়িয়ে ছিলাম অনেকক্ষণ।গাড়ী না পেয়ে হাটা শুরু করলাম উত্তরার উদ্দেশে। কিছু ক্ষণ হাটার পর বাড্ডা পরজন্ত জাওয়ার পর একটা ভ্যান পেলাম। চার জনে মিলে উত্তরা ৪ নম্বর পর্যন্ত ভাড়া করলাম। ভাড়া ৬০০ টাকা! কিন্তু নুতন বাজার পর্যন্ত যওয়ার পর পিকেটিং এর কবলে। জীবন বাঁচাই, না চাকরি? এটি খুব ছোট্ট একটি বিষয়। আজকের হরতাল নিয়ে ইতি মধ্যে ব্লগে আমি লিখেছি “মাননীয় বিরোধী দলীয় নেত্রী, আজকের হরতালটি কী কারনে, কার জন্যে এবং কেন?” পাঠক হয়তো পড়েছেন এতক্ষণে। যাই হোক নুতন করে আমি কিছু আর লিখতে চাইনা। একটু কষ্ট করে আমার লেখাটি পড়ে নিবেন।“মাননীয় বিরোধী দলীয় নেত্রী, আজকের হরতালটি কী কারনে, কার জন্যে এবং কেন?” এই ফিচার টি।

যাই হোক আজ আমারা সকল ব্লগার এবং অগনিত পাঠক হরতাল নিয়ে কিছু শেয়ারে করি আসুন।হরতাল নিয়ে কিছু বলি, আলোচনা করি। এই মরণ ব্যাধির বিপরীতে জনমত গড়ি। আসুন আজ সব লেখা বাদ দিয়ে শুধু “হরতাল” নিয়েই লিখি “লাইভ কমেন্ট” !

নিচের প্রশ্ন গুলির উত্তর আমারা সবাই দেবার একটু চেষ্টা করি ব্লগে। প্লিজ লিখুন হরতাল নিয়ে। হোক সেইটা পক্ষে বা বিপক্ষে –

১। হরতাল আমাদের জাতিও জীবনে কতটা জরুরি?
২। যেই কারনে আজকের হরতাল তার যুক্তিকতা কতটুকু?
৩। আজ তত্ত্বাবধায়ক সরকার বাঁচানোর জন্য যেই হরতাল, সেই তত্ত্বাবধায়ক সরকার এর জন্ম কাদের জন্য?
৪।হরতালে নেত্রী বৃন্দের সন্তানদের কোন ক্ষতি হয় কি? ওদের পড়াশোনা, চাকরি, অফিস যাওয়া?
৫। বর্তমান সরকার অনেক ক্ষেত্রেই বার্থ। তার প্রতিবাদের জন্য হরতাল এর বিকল্প কি করা যায়?
৬। হরতাল এর সময় যেই ভয়াবহ বিপদে আপনি পড়েছিলেন, গা শিউরে ওঠা কোন ঘটনা ( যদি থাকে শেয়ার করুন)
৭। আওয়ামীলীগ ও হরতাল করেছে, একসময় তাদের নেত্রীই বলেছিলেন “ বিরোধী দলে গেলেও হরতাল করবে না” তিনি কথা রাখেনি কেন?
৮। আগামীতে হরতাল কী আমরা আর দেখতে চাই?
৯। আজ কথায় কথায় গনতন্ত্রের কথা বলা হয়, আমরা সত্যিকারের কত খানি গনতন্ত্র
ভোগ করছি। আমরা কতটা স্বাধীন? স্বাধীন হলে কেন বাইরে গেলে পিকেটিং এর শিকার হই?
১০। হরতাল নামের দেশ ধ্বংসী মরন ব্যাধি থেকে কি আমরা মুক্তি চাই? নাকি হরতাল চাই আর ও।
১১। বিরোধী নেত্রী বলেছেন সামনে লাগাতার কর্মসূচী আসছে, এই বক্তব্যের প্রেক্ষিতে আপনার প্রতিক্রিয়া কী?

আসুন আমরা আমদের মতামত পর্যবেক্ষণ ব্যক্ত করি।

***
ফিচার ছবি: [১: বাংলাদেশ প্রতিদিন], [২: দৈনিক সংগ্রাম]