ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

 

শেষ পর্যন্ত জাতি মনে হয় হরতাল মুক্ত হতে চলেছে। হরতাল আজ কেবল নুতন মোড়কে পুরাতন পণ্য। তাই সচেতন ব্যক্তি ও সুধী সমাজ আজ আর হরতাল সমর্থন করেন না। সমর্থন করেনা দেশের আপামর জনসাধারন, দেশের ব্যবসায়ী, দিন মজুর সহ সমাজের নানা পেশা, নানা মতের মানুষ। সবাই আজ হরতাল এর বিকল্প চায়। হরতাল এর লেলিহান শিখায় কেউ আর পুড়তে চায়না। মানুষ চায় তার স্বাভাবিক কর্মকাণ্ডে যেন কেউ বাধা হয়ে না দাড়ায়। হরতাল এর নামে দেশ ঘাতি আর আত্মঘাতী সিদ্ধান্ত যেন আর কোন সুস্থ মস্তিস্ক সম্পন্ন মানুষ মেনে নিতে পারছেনা।

সম্ভবত বি এন পি নেত্রী ও আজ এটা উপলব্ধি করতে পেরেছেন যে তাদের হরতাল আর জাতিকে খাওয়ানো যাবেনা। এই খাবার এত টা বাসি হয়ে গেছে যে এটা খেলে নির্ঘাত পেটে বদ হজম হয়ে যাবে। তাই বিকল্প খোজা। আজ বি এন পি যেইটি করলেন সেইটি বোধ হয় সেই হরতাল এর বিকল্প রুপ! একে স্বাগত যানাই। হোক সেটি ফলের রস খেয়ে অনশন, তবুও হরতাল তো নয়।

বিএনপি নেত্রী আজ তার বক্তব্যে বলেছেন,

আর জ্বালাও-পোড়াও, ভাঙচুর-ধ্বংসের রাজনীতি নয়, হরতাল নয়। মানুষকে নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যের মতো শান্তিপূর্ণ আন্দোলনের মাধ্যমে এই ফ্যাসিস্ট সরকারের পতন ঘটানো হবে।

আল্লাহ তুমি ম্যাডাম এর কথা কবুল কর। তিনি যেই হরতাল না করার জন্য আজ প্রতিজ্জা বদ্ধ হলেন আল্লাহ সেই কথার বাস্তবায়ন করার তৌফিক তুমি দাও।

বি এন পি নেত্রীর আজ যে শুভ বুদ্ধির উদয় হোল তাতে করে আমারা আজ ভীষণ অভিভুত। আমরা জাতি হিসাবে ও আজ গর্ব বোধ করতে পারি যে আমাদের নেত্রী আর হরতাল দিচ্ছেন না। অতীতে শেখ হাসিনা হরতাল না করার ঘোষণা দিয়েও সেটি রাখতে পারেন নি। এবার বি এন পি নেত্রীর পালা। দেখা যাক তিনি পারেন কিনা?