ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা, ব্লগ সংকলন: সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ড

 

সাগর এবং রুনী। এই ছবি শুধুই স্মৃতি।

সাগর-রুনি হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ধামাচাপা দিতে নতুন গল্প সাজাচ্ছে RAB৷ গল্পটি হচ্ছে এরকম, রুনি প্রথমে সাগরকে হত্যা করেছে৷ এরপর নিজে আত্মহত্যা করেছে৷ এই ঘটনাকে বিশ্বাসযোগ্য করতে ভিসিরা রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে৷ ভিসিরা রিপোর্টে যদি দেখা যায়, সাগরকে হত্যার আগে ঘুমের ওষুধ বা চেতনানাশক কিছু খাওয়ানো হয়েছিল, তাহলেই RAB-এর নাটক তৈরি সহজ হবে৷ তখন বলা হবে, রুনি প্রথমে সাগরের হাত পা বেঁধেছে৷ এরপর তাঁকে এলোপাথাড়ি কুপিয়ে হত্যা করে নিজে আত্মহত্যা করেছে৷

RAB অবশ্য আনুষ্ঠানিকভাবে এই গল্প এখনো প্রচার করেনি৷ কিন্তু ইতিমধ্যে অনেকেই এই পরিকল্পনার কথা জেনে গেছে৷ এখানে বলা প্রয়োজন, ‘সাগর-রুনির হত্যাকারীদের বিচার চাই’ পাতার সমর্থক King Shahriar কয়েকদিন আগে এই সংক্রান্ত একটি পোস্ট দিয়েছিলেন৷ তিনি লিখেছিলেন, ‘‘সাগর-রুনি মদ খেয়ে নিজেরা মারামারি করে মারা গিয়েছে… … … RAB এর রেজাল্ট এরকম হলে কেমন হলে আপনার মন্তব্য কি? আমি কিন্তু অবাক হবো না’’। King Shahriar-এর এই মন্তব্যের পর আমরা বিষয়টি খতিয়ে দেখার চেষ্টা করি এবং এধরনের একটি গল্প সাজানোর চেষ্টার সত্যতা জানতে পারি৷

আমরা পরিষ্কারভাবে বলতে চাই, RAB-এর নতুন গল্প কোনভাবেই বিশ্বাসযোগ্য হবে না৷ কেননা, পুলিশ ইতিমধ্যেই স্বীকার করেছে, সাগরের ল্যাপটপ এবং মোবাইল খুনিরা নিয়ে গেছে৷ রুনি এই হত্যাকাণ্ড ঘটিয়ে থাকলে ল্যাপটপ এবং মোবাইল কে নিয়েছে? তাছাড়া ময়নাতদন্তের রিপোর্টে উল্লেখ রয়েছে, রুনি সাগরের আগেই মারা গেছে৷ মেঘও একাধিকবার বলেছে, বাসায় ‘আঙ্কেলরা’ ছিল৷ RAB যে গল্প বানানোর চেষ্টায় মশগুল সেটার সঙ্গে এসব বিষয় মিলবে না৷

সুতরাং সবাই সতর্কভাবে এই অপচেষ্টার বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়ান৷ সাগর-রুনির প্রকৃত খুনিদের গ্রেপ্তার ও বিচারের দাবিতে আমাদের আন্দোলন চলবেই৷ এক্ষেত্রে কোন ছলচাতুরি সহ্য করা হবে না৷

তথ্যসূএ: ফেসবুক এবং সাগর রুনী হত্যার বিচার চাই (পেজ )