ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

 

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সাবেক অধিনায়ক মো. আশরাফুল ৭ জুলাই তোমার ২৮তম জন্মদিনে জানাই আন্তরিক শুভেচ্ছা। ইতিমধ্যে তুমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ১১ বছর পার করে এসেছ। দেশকে এনে দিয়েছ অনেক বিজয়। ফলে আমরা জাতি হিসেবে বিশ্বের দরবারে হয়েছি আলোচিত। তবে এরমধ্যে আমাদের অনেক প্রত্যাশা পূরণ করতে পারনি। এমন বৈশিষ্ট্য অবশ্য সব মানুষের মধ্যেই আছে এবং থাকবে। তবে দেশের মানুষের প্রত্যাশার কথা মনে রেখে আগামীতে খেলা অব্যাহত রাখার চেষ্টা করতে হবে। আর ধারাবাহিকতা বজায় রাখতেই হবে তোমাকে। কেননা , যখন তোমার পারফরমেন্সের কারণে যখন দলের বাইরে থাক, তখন খুব খারাপই লাগে। এজন্য ধারাবাহিক পারফরমেন্স বজায় রাখতে হবে।

বাংলাদেশের একজন খেলোয়ার হিসেবে তুমি বিশ্বের অনেক খেলোয়ারই তোমাকে অনুসরণ করে স্কুপ শর্ট খেলেন। বিশ্বের অনেক নামকরা খেলোয়ার যখন তোমার আবিস্কৃত স্কুপ শর্ট খেলেন, তখন প্রতিটি শর্টের সময়ই তোমাকে স্মরণ করি।

সামনে তোমার অনেক পথ বাকি রয়েছে। তোমাকে গন্তব্যে পৌঁছাতে হবে। আর একটি বিষয় তোমাকে বেশি মনে রাখতে হবে, সেটি হল-তুমি এতোদিন দলের জুনিয়র ছিলে। কিন্তু এখন দলের বেশিরভাগই তোমার জুনিয়র। এজন্য তুমি তাদের সঙ্গে মানিয়ে খেলবে। এ বিষয়টি তোমাকে অবশ্যই মনে রাখতে হবে, তুমি দলের, দেশের এবং নিজের জন্য খেল।

ইতিমধ্যে তুমি আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৫৭ টেস্টে পাঁচটি সেঞ্চুরিসহ প্রায় আড়াই হাজার রান করেছ। ১৭১টি একদিনের খেলায় তিনটি সেঞ্চুরিসহ করেছেন ৩৩৯৭ রান করেছ।

আমরা চাই তুমি আরও অনেক দূর যাও। এজন্য দেশের দর্শকের সহানুভূতি অনেক। হয়ত তুমি তা বোঝ না। আমি তোমার খেলা অনেক পছন্দ। আমি একজন সংবাদকর্মী। একদিন কথা হলো বিসিবির সভাপতি আহম মুস্তফা কামালের সঙ্গে। জিজ্ঞেস করতেই তিনি বললেন, পারফরমেন্স খারাপের কারণে আশরাফুলকে দলের বাইরে রাখলেও দর্শকের প্রশ্নের জবাব দিতে হয়, আশরাফুলকে কেন দলের বাইরে রাখা
হয়েছে। এই প্রশ্ন থেকেই তোমার প্রতি দর্শকদের ভালোবাসা এবং সাপোর্টের বিষয়টি মনে রাখবে এবং সে অনুসারে খেলবে। তুমি অনেক দূরে যাবে এ প্রত্যাশাই আমাদের——————————————————-