ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

 

লেনদেন বন্ধ। অযথা ঋণের সুদ গুণে লাভ কি? তাই শেয়ার বিক্রিতে ধুম পরে। তাদের যৌক্তিক দাবিও আছে, গত দুই দিন শেয়ারবাজারে ঊর্ধ্বগতি ছিল। তাই সোমবার শেয়ার বিক্রি করছি। আর বুধবার থেকে বাজার ১১ দিনের জন্য বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। অহেতুক মার্জিন ঋণের সুদ দেব কেন। তবে বিশ্লেষকরা জানালেন, অন্য কথা, তাদের মতে বাজারে উঠা-নামা থাকবে। তাই দুই দিন ঊর্ধ্ব গতির পর আজ বাজারে স্বাভাবিক মূল্য সংশোধন হয়েছে।

তবে যারা আগে শেয়ার কিনেছেন, তাদের জন্য সু-খবর নেই। কারণ বেশি দামে শেয়ার কিনে বসে আছেন তারা। তাই শেয়ার বিক্রিও করতে পারছে না। তাই অহেতুক ১১ দিনের ঋণের সুদের ঘানি টানতে হবে তাদের। এজন্য অবশ্য তাদের কেউ কেউ এ সময়ে সুদের হার কিছুটা কমানোর দাবী জানিয়েছিল। কিন্তু কে শোনে কার কথা?