ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

আমাদের বাংলাদেশে দিনকে দিন মাদকাসক্ত নেশাখোরের সংখ্যা বাড়ছে। পর্যবেক্ষন করে দেখা গেছে মাদকাসক্ত লোকদের মধ্যে যুবসমাজের লোকজন্ই সবচেয়ে বেশি আসক্ত এই মরন অভ্যাসে। আমাদের দেশ যদি রাষ্ট্রীয়ভাবে উদ্যোগ নেয় মাদকাসক্ত প্রতিরোধ করার এবং বিরোধীদলের সহযোগিতা থাকে তা হলে মাদকের ভয়াবহতা থেকে আমাদের সমাজকে রক্ষা করা অনেক কঠিন হবে না বলে বিশেষজ্ঞরা মত দিয়েছেন।

মাদক সেবনের কারনে কিন্তু সমাজ বা রাষ্ট্রে সন্ত্রাসের জন্ম হয় । যার প্রসারে সমাজের অনেক অনৈতিক কর্মকাণ্ডে পরিলক্ষিত হচ্ছে । এই কঠিন কাজটি কিন্তু শুধু আইন করে কখনো বন্ধ করা যাবে না, এর নিরাময়ের জন্য আমাদের প্রশাসনিক পদক্ষেপ , রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত , সরকারী বেসরকারী, সামাজিক সংগঠনগুলোকে সচেতন হতে হবে , তবেই আমরা এই মরন ব্যাধি থেকে উদ্ধার পেতে পারি।

সরকারীদল এবং বিরোধীদল সকলে একটি কাজে যদি ঐক্যমত পোষন করা যায় যে আমাদের কোন নেতা বা কর্মী এই মরন নেশা মাদক দ্রব্যের সাথে সম্পৃক্ত থাকবে না , আমার বিশ্বাস নামি-দামি কোন নেশাখোর বা পুঁচকে নেশাখোর সাহস পাবে না এই দ্রব্যর ব্যাবহার করতে।

গনমাধ্যম কর্মীরা যদি সোচ্চার হন , ইলেকট্রনিক মিডিয়ার মাধ্যমে এবং প্রিন্ট মিডিয়ার মাধ্যমে , জাতিকে বোঝাতে হবে, মাদকদ্রব্যের কারনে আমাদের দেশে উন্নয়নের বাধাগ্রস্ত হচ্ছে ,যুবসমাজ ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে, চুরি-ডাকাতি বাড়ছে,অনৈতিক কর্মকাণ্ড প্রসার বিস্তার করছে। এই ভাবে শ্লোগান দিয়ে যদি আমরা অগ্রসর হতে পারি তবে মাদক মুক্ত সমাজটাও আমাদের সামনে আসতে পারে । তাই আসুন আমরা সকলে মুখে বলে নয় বাস্তবে মাদক দ্রব্যের বিরুদ্ধে সামাজিক প্রতিরোধ গড়ে তুলি।