ক্যাটেগরিঃ ব্যক্তিত্ব

 

ইভোন রিডলী ১৯৫৯ সালে ইংল্যান্ডের ডারহাম কাউন্টিতে জন্ম গ্রহণ করেন। কৈশোর থেকেই তিনি পেশাগত রিপোর্টার হওয়ার আকাঙ্ক্ষা পোষণ করতেন। বয়স যখন চৌদ্দ, তখন ইভিনিং ক্রনিকল এ তার লেখা একটি পত্র ছাপা হলে তিনি সাংবাদিক হবার জন্য বিশেষভাবে উদ্বুদ্ধ হন এবং সেজন্য মনস্থির করেন। ষোল বছর বয়সে তিনি ইংল্যান্ডের সব পত্রিকায় লেখেন ও তারপর সাংবাদিকতার উপর লন্ডন কলেজ অব প্রিন্টিং এ একটি কোর্স সম্পন্ন করেন।

এরপর থেকে তিনি লিখতে থাকেন সানডে টাইমস, ইন্ডিপেন্ডেন্ট, অবজারভার, মিরর এবং নিউজ অব দি ওয়ার্ল্ডে। ওয়েলস অন সানডে এর তিনি ছিলেন সম্পাদক। পরে সানডে এক্সপ্রেস এর প্রধান প্রতিবেদক হয়ে তিনি আফগানিস্তানে গিয়েছিলেন যুদ্ধের খবর সংগ্রহ করতে। সেখানে তিনি তালেবানদের হাতে ধরা পরেন ও যুদ্ধ শুরু হলে তালেবানরা তাকে মুক্ত করে দেয়। তিনি বিবিসি টিভি ও রেডিও, সিএনএন, আইটিএন ও কার্লটন টিভি-তে সম্প্রচার, প্রযোজনা ও উপস্থাপনার কাজও করেছেন। তিনি আফগানিস্তান ছাড়াও ইরাক, ফিলিস্তিন ঘুরে বেড়িয়েছেন অনুষ্ঠান তৈরির জন্য।

তিনি ‘সাংবাদিকতায় নারী’ এবং ‘স্টপ দি ওয়ার কোয়ালিশন’ নামক সংগঠন দুটির প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। তিনি যুক্তরাজ্য ও বিশ্বের নানা স্থানে ভ্রমণ করেছেন তার শান্তি ও যুদ্ধবিরোধী বার্তা প্রচারের জন্য। একই সাথে তিনি একজন মানবাধিকার কর্মী এবং পশ্চিমে মুসলিম নারী জাগরণেও তিনি একটি উচ্চকিত কণ্ঠস্বর।

তথ্য সূত্র: [উইকিপেডিয়া] [ইভোন রিডলী]

n

বিষয়ভিত্তিক বিভাজনসহ ব্লগসূচী