ক্যাটেগরিঃ অর্থনীতি-বাণিজ্য

গত কিছুদিন যাবত প্রথম আলো ডেসটিনি নিয়ে খুব লেখালেখি শুরু করে দিয়েছে । অবস্তা দেখে মনে হয় প্রথম আলো দেশবাসিকে বড় কোন ক্ষতি থেকে রক্ষা করে দিতেছে । কিন্তু ডেস্টিনি কি গত কয়েকদিন ধরে ব্যবসা পরিচালনা করছে ? প্রতিষ্ঠার পর থেকে দীর্ঘ একযুগ ডেস্টিনি নিজেদের কর্মকাণ্ড বহাল তবিয়তে চালিয়ে গেছে তখন তো প্রথমআলো ডেস্টিনির বিরুদ্ধে এত উঠে পড়তে দেখি নাই ।হঠাৎ করে কেন এত অভিযোগ! পুরাতন আসামিকে কেন এত রঙ মাখামাখি করে বিচারের সম্মুখীন করা?

পৃথিবীর অনেক উন্নত দেশে কোন কোম্পানি ব্যবসা পরিচালনায় ব্যর্থ হলে,নিজেদের দেউলিয়া ঘোষণা করতে কোর্টের দ্বারস্থ হয়।আর কোর্ট সবকিছু যাচাই বাচাই করে,কোর্টের মনপুত হলে দেউলিয়া ঘোষণা করে দেন ।আর এতেই ঐসব কোম্পানি পরিচালকেরা কিছুটা হাঁফ ছেড়ে বাঁচেন। অনেকটা নিজেদের শেষ রক্ষা করার মত ।কিন্তু আমাদের দেশে কি ঘটে !!অবশ্যই নিত্য নতুন আঙ্গিকে সম্পূর্ণ দেশীয় স্টাইল । দ্বায়িত্বশীল সবাই মিলে চেয়ে চেয়ে থাকবে । দেখে ও না দেখার, শুনে ও না শুনার ভান করবে !! অথচ এদের সবার সমনে ডেস্টিনি বুক ফুলিয়ে ব্যবসা করছে ।হাজার হাজার টাকার আমানত সংগ্রহ করেছে ,টিভি চ্যানেল দিয়েছে ,জাতীয় পত্রিকা প্রকাশ সহ নানা রকম ব্যবসা পরিচালনা করেছে ।তখন প্রথমআলো কোথায় ছিল,সরকার কি করেছিল ? কিছু দিন আগে যুবকও ঠিক এভাবে প্রথমআলো দ্বারা দেউলিয়া ঘোষিত হয়েছিল । আর এখন শুরু হয়েছে ডেস্টিনির ওপেন হার্ট সার্জারি , যা অত্যান্ত সফলতার সহিত কাটাকাটি চলিতেছে ।হয়ত কিছুদিন পর চেম্বার থেকে বের হয়ে সরকার বাহদুরের কোন কর্মকর্তা বলিবেন, দুঃখিত ডেস্টিনিকে আর বাঁচানো গেল না ।এরপর আর কি যুবক গ্রাহকদের যা হয়েছিল , ডেস্টিনি গ্রাহকদের ও তাহা হইবে । আর এভাবে চলিতে থাকিবে আমাদের দেশে রাঘব বোয়ালের অবৈধ ব্যবসা ।