ক্যাটেগরিঃ আর্ত মানবতা

মৌলভীবাজারে বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়ানোর আহ্বান জানিয়েছে জেলা পরিষদ প্রশাসন। একই সাথে জেলার পাঁচটি উপজেলার বন্যা কবলিত এলাকায় ত্রাণ বিতরণ করছে জেলা পরিষদ কর্তৃপক্ষ।

জেলা পরিষদ চেয়ারম্যান সৈয়দ আজিজুর রহমানের আহবানে সারা দিয়ে বিভিন্ন দানশীল মানুষের অর্থায়নে এসব ত্রাণ বিতরণ করা হচ্ছে।

এর মধ্যে গত ২১ জুলাই শুক্রবার শ্রীমঙ্গল উপজেলার মির্জাপুর ইউনিয়নে ১৫০ দুর্গত পরিবারে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ জাবেদ, পরিষদ সদস্য সৈয়দা জেরিন আক্তার, মশিউর রহমান, ইউপি চেয়ারম্যান আবু সুফিয়ান সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিরা।

Tran Bitoron1

.

এরপর গত ২২ জুলাই শনিবার জেলা পরিষদের আহবানে প্রাইম ব্যাংকের অর্থায়নে কুলাউড়া উপজেলার হাজীপুর ও শরীফপুর ইউনিয়নে ত্রাণ দেয়া হয়। দুই ইউনিয়নের এক হাজার বন্যা দুর্গত পরিবারের মধ্যে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ জাবেদ, জেলা পরিষদ এসোসিয়েশনের সভাপতি রওনক আহমেদ অপু, কুলাউড়া উপজেলা চেয়ারম্যান আ স ম কামরুল ইসলাম, জেলা পরিষদ সদস্য জেরিন আক্তার, বদরুল ইসলাম, হাজীপুর ইউপি চেয়ারম্যান আব্দুল বাছিত বাচ্চু সহ এলাকার গন্যমান্য ব্যক্তিবর্গ।

রোটারেক্ট মৌলভীবাজারের পরিচালনায় জেলা পরিষদের পক্ষ থেকে রাজনগর উপজেলার উত্তরভাগ ইউনিয়নের ৫০ টি বন্যা দুর্গত পরিবারে ত্রাণ বিতরণ করা হয়।

এছাড়া মৌলভীবাজার জেলার জুড়ী ও বড়লেখা উপজেলায় বন্যা দুর্গতদের মধ্যে ত্রাণ  দেয়া হচ্ছে।

এ বিষয়ে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আজিজুর রহমান বলেন, “জেলার ৫টি উপজেলার প্রায় ৮লক্ষ মানুষ বন্যা কবলিত। তাদের জন্য এই ত্রাণ পর্যাপ্ত নয়। সমাজের দানশীল ব্যক্তিদের প্রতি মানবিক আবেদন, বন্যা দুর্গতদের পাশে দাঁড়ান, তাদের জীবিকা নির্বাহে সাহায্য করুন।”

জেলা পরিষদের প্যানেল চেয়ারম্যান হাসান আহমেদ জাবেদ বলেন, “জেলার বিরাট অংশ বন্যা কবলিত, আমরা বন্যা কবলিত বানবাসীদের সাহায্য করছি, আপনারাও তাদের পাশে দাঁড়ান। সকলের সম্মেলিত প্রচেষ্টায় দুর্যোগ মোকাবেলা সহজ হবে।”