ক্যাটেগরিঃ রাজনীতি

অচিন্ত্য মজুমদার॥ বিজেপি ভোলার প্রেক্ষাপটে সরকার বিরোধী আন্দোলনে আছে এবং শক্ত অবস্থানে থাকবে। আ’লীগের দুঃশাসন মোকাবেলা করতে ভোলার বিজেপি এখন সক্ষম। এখন সময় এসেছে দুঃশাসনের জবাব দেয়ার। জেল-জুলুম আর টেন্ডারবাজিতে বেপরোয়া আ’লীগকে আর সহ্য করা হবেনা। এখন আবার তারা গণ মাধ্যমের ওপর নগ্ন হস্তক্ষেপ করছে। এটা গণতন্ত্রের জন্য ভাল না। কৌশলে তত্ত্বাবধায়ক সরকারকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে। জনগন চায় তত্ত্বাবধায়ক সরকার থাকবে। তাই নির্বাচন তত্ত্বাবধায়ক সরকারের অধীনেই হতে হবে। এর বাইরে হলে গ্রহণযোগ্য হবেনা। এসময় তিনি আরো বলেন, ভোলার মানুষ আমাকে জেলে যাওয়ার আগে যে ভাবে দেখেছে। ঠিক জেল থেকে আসার পরও আমাকে নাজিউর রহমান মঞ্জুর ছেলে হিসেবে সেই ভালবাসায় আবদ্ধ করেছে। রাস্তায় রাস্তায় সাধারন মানুষের ফুলেল শুভেচ্ছা আমাকে অভিভূত করেছে। ভোলার মানুষের ভালবাসায় আমি মুগ্ধ।

কারামুক্তির পর প্রথম বারের মতো ২১জুন ভোলায় এসে উকিল পাড়া তার বাসভবনে নেতা, কর্মীদের উদ্দেশ্যে এসব কথা বলেন বিজেপি’র চেয়ারম্যান ও ভোলা-১ আসনের সাংসদ ব্যারিষ্টার আন্দালিব রহমান পার্থ। এর আগে ভোলা জেলা বিজেপি’র ব্যাবস্থাপনায় সড়ক পথে বরিশাল হয়ে ভোলা ভেধুরিয়া ফেরী ঘাটে আসেন বিজেপি’র এ সদ্য কারামুক্ত নেতা। সেখান থেকে শতাধিক মোটর সাইকেলসহ বিশাল গাড়ী বহরে ভোলার পথে রওনা হয়। এ সময় রাস্তার দু’পাশে হাজার হাজার নেতা কর্মী, নারী, পুরুষ, স্কুল, কলেজ, মাদ্রাসা, জিয়া সুপার মার্কেটের ব্যাবসায়ী সমিতিসহ বিভিন্ন সংগঠন উপস্থিত থেকে তাকে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান। মুহুর মুহুর শ্লোগান, হাত তালি আর মোটর সাইকেলের হর্ণে পুরো ভোলা শহর মুখোরিত হয়ে ওঠে। পরে তার বাস ভবনের সামনে উপস্থিত নেতা কর্মীদের উদ্দেশ্যে বক্তব্য রাখেন ব্যারিষ্টার আন্দালিব রহমান পার্থ। এসময় আরো বক্তব্য রাখেন জেলা বিজেপী’র সাধারন সম্পাদক আনোয়ার হোসেন, যুগ্ন সাধারন সম্পাদক আমিরুল ইসলাম রতর প্রমুখ।