ক্যাটেগরিঃ আইন-শৃংখলা

নওগাঁ জেলার ধামইরহাট উপজেলার ঈশবপুর ইউনিয়নের বিলশিরি গ্রামে গত ২৪ মার্চ ২০১২ ইং তারিখে সন্ধার সময় স্ত্রী মমতা রানী(২৬)-র গায়ে কেরসিন তেল ঢেলে দিয়ে স্বামী সুকুমার আগুন ধরে দেয়। এতে মমতা রানীর শরীরের প্রায় ৬০ শতাংশ পুড়ে যায়। ঘটনার সংবাদ পেয়ে ধামইরহাট থানার ওসি(তদন্ত) জনাব মাজহারুল ইসলাম ঘটনা স্থলে ছুটে যান এবং মমতা রানীকে উদ্ধার করে চিকিত্সার জন্য জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে প্রেরণ করেন। কর্তব্যরত ডাক্তার রুগির অবস্থা বেগতিক দেখে ঢাকায় স্থান্ততরের পরামর্শ দেন। ওসি তদন্ত নিজ খরচে মমতা রানীকে ঢাকা পাঠানোর ব্যবস্থা করেন। মমতা রানী বর্তমানে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ণ ইউনিটে চিকিৎসাধীন আছেন। তার রুম নং ৫১৯ বেড নং ১০। মমতা রানীর স্বামী সুকুমারকে ধামইরহাট থানা পুলিশ গ্রেফতার করে জেল হাজতে প্রেরণ করে। মমতার ছো্ট্ট দু’সন্তান বর্তমানে খাবার কষ্টে আছে। মমতার পাশে দাঁড়ানোর জন্য সকলের প্রতি অনুরোধ রইল।