ক্যাটেগরিঃ খেলাধূলা

আর মাত্র কয়েক ঘণ্টা! পর্দা উঠছে একাদশতম এশিয়া কাপ ক্রিকেটের। প্রস্তুত মিরপুরের শেরে বাংলা স্টেডিয়াম। টুর্ণামেন্টের উদ্ভোধনী ম্যাচেই পাকিস্তানের মুখোমুখি স্বাগতিক বাংলাদেশ। স্বস্তিতে নেই কোন দলই। সদ্যই দুবাইতে ওয়ানডে সিরিজে ইংল্যাণ্ডের কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়ে এসেছে পাকিস্তান। অন্যদিকে, দল নির্বাচন বিতর্কের রেশ ধরে নাটকীয় সপ্তাহ পার করা বাংলাদেশের ক্রিকেটে এক ধরনের অস্থিরতা। দিবারাত্রির এ ম্যাচ শুরু হবে দুপুর ২:০০ টায়। কে হাসবে বিজয়ীর হাসি?

বিশ্বস্ত সূত্রে জানা গেছে, নাজিম উদ্দিনের তামিম ইকবালের সাথে খেলার কথা থাকলেও ইমরুল কায়েসই থাকছেন মূল একাদশে। দীর্ঘ ১১ মাস পর বোলিং আক্রমণের নেতৃত্বে ফিরছেন দেশসেরা পেসার মাশরাফি বিন মুর্তজা। উইকেটে ঘাস আছে বলে তিন পেসার নিয়ে নামতে পারে বাংলাদেশ! শেষ মুহূর্তে যদি তাই হয় তাহলে শফিউলের সাথে তৃতীয় পেসার হিসেবে থাকবেন আমার বিচারে প্রশ্নবিদ্ধ শাহাদাত হোসেন। সেক্ষেত্রে বিপিএলে দূর্দান্ত পারফরম্যান্সের পরও একাদশের বাইরে থাকতে হবে ইলিয়াস সানিকে!

সম্ভাব্য বাংলাদেশ দল: ১। তামিম ইকবাল ২। ইমরুল কায়েস/নাজিম উদ্দিন ৩। মাহমুদউল্লাহ ৪। সাকিব আল হাসান ৫। মুশফিকুর রহিম (অধিনায়ক ও উইকেটরক্ষক) ৬।জহুরুল ইসলাম ৭। নাসির হোসেন ৮। মাশরাফি বিন মুর্তজা ৯। আবদুর রাজ্জাক ১০। শফিউল ইসলাম ১১। শাহাদাত হোসেন/ইলিয়াস সানি।

নজর রাখুন: বেশ কিছুদিন খারাপ ফর্মে থাকা ও যাকে ঘিরে এত বিতর্ক সেই তামিম চাইবেন মাঠেই এর জবাব দিতে। আর এতে যদি তিনি সফল হয়ে যান তাহলে ভালো ফলাফলের আশা করতে পারে বাংলাদেশ।

তারকা খেলোয়াড়: নিঃসন্দেহে সাকিব আল হাসান বর্তমানে দলের সবচেয়ে বড় তারকা। প্রতিপক্ষ অধিনায়ক তার ব্যাপারে বাড়তি গুরুত্ব দিয়েছেন।

পাকিস্তান দল ঐ বাজে সিরিজের আগে ১৯ খেলায় ১৬ টিতেই জয়ী হয়েছিল। মূল এগারজনের বাইরেও তাদের আরেকশক্তি তাদের নতুন কোচ ডেভ হোয়াটমোর। বাংলাদেশের নাড়ি নক্ষত্র যে তার জানা! পাকিস্তান চাইবে দূর্দান্ত সূচনা করতে।

সম্ভাব্য পাকিস্তান দল: ১। মোহাম্মদ হাফিজ ২। আজহার আলি ৩। ইউনিস খান ৪। উমর আকমল ৫। মিসবাহ-উল-হক (অধিনায়ক) ৬। আসাদ সফিক ৭। শাহিদ আফ্রিদি ৮। সরফরাজ আহমেদ (উইকেটরক্ষক) ৯। উমর গুল ১০। সাঈদ আজমল ১১। এজাজ চিমা

নজর রাখুন: মোহাম্মদ হাফিজ ঢাকার স্লো উইকেটে বোলিংয়ে বিপজ্জনক হয়ে উঠতে পারেন। ঝড়ো ব্যাটিংয়ের সাথে দুরন্ত ফিল্ডিং বোনাস হিসেবে তো থাকছেই।

তারকা খেলোয়াড়: বল হাতে সোনালী সময় পার করছেন সাঈদ আজমল। তার ঘূর্ণিবলের জাদুকরী ভেল্কিতে হুড়মুড় করে ভেঙ্গে পড়তে পারে বাংলাদেশের ব্যাটিং লাইন আপ।

টস ম্যাচের এক গুরূত্বপূর্ণ নিয়ামক হবে। রাতের শিশিরের কথা ভেবে টসজয়ী অধিনায়ক ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্তই নিবেন বলে ধারণা করা হচ্ছে। এ উইকেটে ২৬০-২৭০ রান হল ফাইটিং স্কোর।

অভিজ্ঞতা ও রেকর্ড সব দিক দিয়ে পাকিস্তান অনেক এগিয়ে। তবে ক্রিকেটে যে কোন কিছু সম্ভব। মাঠভর্তি দর্শকের বিপুল সমর্থন পাবে স্বাগতিকরা। উদ্দীপনার এ মাসে বাংলাদেশ কি পারবে নর্দাম্পটনকে ফিরিয়ে আনতে? `বাংলাদেশ দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্য নিয়ে খেলবে` সাকিবের এ কথার প্রতিফলন ঘটুক আজ মিরপুরে। আশায় তাকিয়ে এদেশের ক্রিকেটপ্রেমী অগণিত সমর্থক। তাকিয়ে সাকিব, মুশফিক, মাশরাফিদের অসাধারণ পারফরম্যান্সের দিকে। গর্জে উঠুক বাংলার দামাল ছেলেরা আরেকবার। ছিনিয়ে নিয়ে আসুক আরেকটি জয়।

১১।০৩।২০১২ ইং